National

চলন্ত ট্রেনে ঘুরছে বিষধর সাপ, পালাবার পথ নেই বুঝতে পারলেন যাত্রীরা

চলন্ত ট্রেন থেকে তো লাফিয়ে পড়া যাবেনা। তাহলে নিশ্চিত মৃত্যু। আবার কামরাতেও যে রক্ষা পাবেন তারও নিশ্চয়তা নেই। যাত্রীদের কার্যত কিছু করার ছিলনা।

একটি দূরপাল্লার ট্রেনে সন্ধে নেমেছে। যাত্রীরা যে যাঁর মত সময় কাটাচ্ছেন। এমন সময় এক যাত্রীর নজরে পড়ে একটি সাপ। বিষধর সাপটি কামরার মধ্যেই ঘুরছে। মুহুর্তে কামরার সকলে জেনে যান বিষয়টি। আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়তে সময় নেয়নি।

আতঙ্ক আরও মাথাচাড়া দেয় কারণ সকলেই বুঝতে পারছিলেন যে সাপটি থেকে রেহাই পেতে কামরা খালি করার উপায় নেই। কারণ ট্রেন চলছে। যদিও অল্প সময়ের মধ্যেই ট্রেন থামে স্টেশনে।

ট্রেনের তরফ থেকেই সাপ খোঁজা চালু হয়। তন্নতন্ন করে কামরা খুঁজে দেখার পরও সাপের দেখা মেলেনা। তাহলে কি কোনও এমন কোণায় লুকিয়ে পড়েছে সাপটি যে তাকে দেখাই যাচ্ছেনা!

ট্রেন অবশেষে স্টেশন ছাড়ে। যাত্রীরা তখনও আতঙ্কে। এরপর রাত ১০টা নাগাদ কোঝিকোড় স্টেশনে এসে থামে ত্রিবান্দ্রম-নিজামুদ্দিন এক্সপ্রেস।

এখানে ফের শুরু হয় তল্লাশি। সাপ খুঁজতে গিয়ে ট্রেন ১ ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকে স্টেশনে। কিন্তু তারপরও সাপকে দেখতে না পেয়ে ফের ট্রেন চালু হয়। রাত হলেও কামরায় তখনও চাপা উত্তেজনা কাজ করছে।

যাত্রীদের খাওয়া, ঘুম সব লাটে উঠেছে। ট্রেন চালু হলে যাত্রীরাই নিশ্চিত হতে কামরা খোঁজা শুরু করেন। অবশেষে তাঁরা ট্রেনের একটি কোণায় একটি ছোট ফুটো দেখতে পান।

যাত্রীদের ধারনা ওই ফুটো দিয়েই সাপটি ট্রেনে চড়েছিল। তারপর সকলের অলক্ষ্যে সেই ফুটো দিয়েই বাইরে বেরিয়ে গেছে। এটা বোঝার পর কিছুটা হলেও স্বস্তি পান যাত্রীরা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button