National

অর্থমন্ত্রীর কাছে তাদের শেখার দরকার নেই, কংগ্রেসের পাল্টা

অর্থমন্ত্রীর রাহুল গান্ধী ও সনিয়া গান্ধীকে করা কটাক্ষের জবাব দিল কংগ্রেস। অর্থমন্ত্রীর সাংবাদিক সম্মেলন করার সময় আরও সিরিয়াস হওয়া দরকার বলেও জানান কংগ্রেস মুখপাত্র আনন্দ শর্মা।

নয়াদিল্লি : গত শনিবার দিল্লির রাস্তায় কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী রাস্তার ধারেই বসে কথা বলেন পরিযায়ী শ্রমিকদের সঙ্গে। ওই আলাপচারিতাকে সরাসরি ড্রামাবাজি বলে কটাক্ষ করেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। তিনি বলেন, রাহুল গান্ধীর উচিত কথা বলে সময় নষ্ট না করে পরিযায়ী শ্রমিকদের জিনিসপত্র বয়ে দিয়ে তাঁদের সঙ্গে হাঁটা। কংগ্রেস পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে রাজনীতি করছে বলেও খোঁচা দেন তিনি।

কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধীকেও উপদেশ দেন অর্থমন্ত্রী। তিনি বলেন, সনিয়া গান্ধীর উচিত কংগ্রেস শাসিত রাজ্যগুলিকে বলা যাতে তারা পরিযায়ী শ্রমিকদের সাহায্য করে। অর্থমন্ত্রীর এমন সরাসরি আক্রমণাত্মক বক্তব্যে রাজনৈতিক মহলে যথেষ্ট তোলপাড় পড়ে। তারপরই তার পাল্টা কড়া জবাব দিল কংগ্রেস।

কংগ্রেস মুখপাত্র আনন্দ শর্মা এদিন অর্থমন্ত্রীর বক্তব্যকে বাজে বকা বলে ব্যাখ্যা করেছেন। তিনি বলেন, অর্থমন্ত্রীর কাছে কংগ্রেস সভানেত্রী শিখবেন না তাঁর কী করা উচিত আর কী নয়। বরং সাংবাদিক সম্মেলন করার সময় অর্থমন্ত্রীরই ছেলেমানুষি না করে অনেক বেশি সিরিয়াস হওয়ার প্রয়োজন আছে। অন্তত তাঁর পদে সেই আভিজাত্যটা থাকা উচিত। এমনই মন্তব্য করেন আনন্দ শর্মা।

আনন্দ শর্মা আরও বলেন, খাবার নেই, টাকাকড়ি নেই। এই অবস্থায় পড়েছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। তাঁদের এই পরিস্থিতির জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের তাঁদের কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত বলেও পরামর্শ দেন আনন্দ শর্মা। তিনি দাবি করেন, কংগ্রেস সবসময় পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে আছে। এদিন সরকারের বিরুদ্ধে আগাগোড়াই বিস্ফোরক ছিলেন আনন্দ শর্মা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button