Sports

রাহানের দাপটে মধুর প্রতিশোধ নিল ভারত

অস্ট্রেলিয়া যে হারতে চলেছে তা পরিস্কার হয়ে গিয়েছিল তৃতীয় দিনের শেষেই। চতুর্থ দিনে জয়টা মাঠে সম্পূর্ণ করল ভারত। রাহানের দাপটে সিরিজে সমতাও ফিরল।

মেলবোর্ন : অস্ট্রেলিয়ার কাছে প্রথম টেস্টে লজ্জার হার হারতে হয়েছিল বিরাট কোহলির ভারতকে। ভারতের সবচেয়ে কম রানে টেস্টে একটা ইনিংস শেষ করার লজ্জা মাথায় করেই হার হয়েছিল। কিন্তু তার পরের টেস্টেই বিরাট কোহলিকে ছাড়াই দাপট দেখাল অজিঙ্কা রাহানের অধিনায়কত্বে ভারত।

ভারত কিন্তু দলে পায়নি বিরাট কোহলি, মহম্মদ সামির মত তারকাকে। তা সত্ত্বেও কার্যত অস্ট্রেলিয়াকে তাদের মাটিকে মুখ থুবড়ে ফেলল ভারত। জয়ের নায়ক অবশ্যই অজিঙ্কা রাহানে। ম্যান অফ দ্যা ম্যাচও হন তিনি।

বক্সিং ডে টেস্ট অস্ট্রেলিয়ার বহু পুরনো রীতি। ২৬ ডিসেম্বর বক্সিং ডে-তে এমসিজিতে একটি টেস্ট ম্যাচ তারা শুরু করে। এবার তা শুরু হয়েছিল ভারতের বিরুদ্ধে।

টস জেতে অজিরা। জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়। ব্যাট করতে নেমে ৩৮ রান করতে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। লাবুশেন ও ট্রাভিস হেড ম্যাচের হাল ধরে কিছুটা টানলেও দলের ১২৪ রানের মাথায় ফের উইকেট পতন শুরু হয়। ১৫৫ রানের মধ্যেই ৬ উইকেট হারায় তারা। ১৯৫ রানে সব উইকেট পড়ে যায়।

প্রথম ইনিংসে সহজ রান তাড়া করতে নেমে ভারতও ১১৬ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারায়। তবে অধিনায়ক অজিঙ্কা রাহানে নিজের দাপুটে ব্যাটিংয়ে অজি বোলিং আক্রমণকে কার্যত নাস্তানাবুদ করে ছাড়েন।

১১২ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। সঙ্গে রবীন্দ্র জাদেজা ৫৭ রান, শুভমান গিল ৪৫ রান, ঋষভ পন্থ ২৯ রান করে দলের খাতায় অনেকগুলো রান যোগ করেন। সব মিলিয়ে প্রথম ইনিংস ৩২৬ রানে শেষে করে ভারত।

১৩১ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে অস্ট্রেলিয়া। ৯৯ রানের মধ্যেই ৬ উইকেট হারিয়ে তখন অস্ট্রেলিয়া ইনিংস ডিফিটের প্রমাদ গুনছে।

এই অবস্থায় ক্যামেরন গ্রিন ও প্যাট কামিন্স ম্যাচের হাল ধরে কোনওক্রমে ইনিংস ডিফিট থেকে অস্ট্রেলিয়াকে বার করে আনেন। ২০০ রানে শেষ হয় অজি ইনিংস। ১৩১ রানে পিছিয়ে থাকা অজিরা ভারতের সামনে ৭০ রানের টার্গেট রাখে।

জয়ের জন্য ৭০ রান দরকার, এই অবস্থায় ব্যাট করতে নেমে ১৯ রানের মধ্যেই ২টি উইকেট হারায় ভারত। কিন্তু এই অবস্থা থেকে ফের ম্যাচের হাল ধরেন রাহানে। সঙ্গে ছিলেন শুভমান গিল।

রাহানে-গিল মিলেই জয়ের লক্ষ্যে ভারতকে পৌঁছে দেন। ৮ উইকেটে দ্বিতীয় টেস্ট জিতে নেয় ভারত। চতুর্থ দিনেই শেষ হয় দ্বিতীয় টেস্ট। ৪ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ এখন ১-১ অবস্থায় রয়েছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button