Sports

দুরন্ত কামব্যাক, রাজকোটে সমতা ফেরাল ভারত

প্রথম খেলায় লজ্জার হারের পর রাজকোটে দুরন্ত কামব্যাক করল ভারত। অস্ট্রেলিয়াকে দ্বিতীয় একদিনের ম্যাচে ৩৬ রানে হারিয়ে দিল তারা। সৌজন্যে টিম গেম। ব্যাটসম্যানেরা সকলেই রান দিয়েছেন। একটি ঠিকঠাক রান প্রায় সকলে দিলে দিনটা যে তাদের হতে পারে সেকথা ফের একবার দেখিয়ে দিল মেন ইন ব্লু। রাজকোটে এদিন ভারতীয় বোলিংও যথেষ্ট ভাল পারফর্মেন্স দেখিয়েছে। আর ব্যাট হাতেই হোক বা উইকেটের পিছনে, শুক্রবার দুরন্ত খেললেন কেএল রাহুল। ম্যান অফ দ্যা ম্যাচও হন তিনিই।

টস জিতে রাজকোটে ভারতকে প্রথমে ব্যাট করতে পাঠায় অস্ট্রেলিয়া। প্রথম ম্যাচে রান তাড়া করে তাদের কোনও উইকেট না হারিয়ে জয়ের কথা বোধহয় ভুলতে পারেনি অজিরা। কিন্তু রাজকোটে দ্রুত উইকেট হারানোর ভুল করল না ভারত। শুরু থেকে ধরে খেলে রানের চাকা ঘুরিয়ে গেছেন রোহিত, শিখর। রোহিত ৪২ রান করে ফেরার পর শিখরের সঙ্গে জুটি বাঁধেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বিরাট, শিখর জুটি এদিন ভারতকে শক্ত ভিতের ওপর দাঁড় করিয়ে দেয়। শিখর ধাওয়ান এদিন ৯৬ রানে ফেরেন। মাত্র ৪ রানের জন্য তাঁর সেঞ্চুরি হল না। বিরাটের সঙ্গে এরপর জুটি বাঁধতে নেমে শ্রেয়স আইয়ার ব্যর্থ হন। মাত্র ৭ রান করে ফিরতে হয় তাঁকে।

বিরাট কোহলি এরপর জুটি বাঁধেন কেএল রাহুলকে নিয়ে। রাহুল এমনিতেই ফর্মে। তবে এদিন তিনি খেললেন ৪ নম্বরে। বিরাট ৭৮ রান করে ফেরেন। তবে যখন ফেরেন তখন খেলা আরও মজবুত স্থিতিতে। এখানে দরকার ছিল মণীশ পাণ্ডের ব্যাট থেকেও রান আসা। কিন্তু এদিন হঠকারী শট মেরে ২ রান করে ফেরেন মণীশ। এরপর রাহুল জাদেজাকে সঙ্গে করে স্লগ ওভারের খেলাটা খেলে দেন। ৫২ বল খেলে ৮০ রান করেন রাহুল। তখন খেলা শেষ হতে ৩ বল বাকি। ভারত ৩৪০ রান করে ৫০ ওভারে।

বড় রান তাড়া করতে নেমে গত ম্যাচের ২ নায়ক ফিঞ্চ ও ওয়ার্নার দুজনেই এদিন তেমন একটা বড় রান দলের খাতায় যোগ করতে পারেননি। ওয়ার্নার ১৫ রানে ও ফিঞ্চ ৩৩ রানে ফেরেন। তবে ম্যাচের মোড় ঘোরানোর মত অবস্থা তৈরি করে ফেলেন স্মিথ ও ল্যাবুশেন। স্মিথ ভয়ংকর হয়ে ওঠেন। ল্যাবুশেন ফেরেন ৪৭ রান করে। এরপর স্মিথের দরকার ছিল উল্টোদিকে একজনের তাঁকে টানা সঙ্গত দিতে পারা। যা অস্ট্রেলিয়ার কোনও খেলোয়াড় করে উঠতে পারেননি। অ্যালেক্স ১৮ রানে ফেরার পর স্মিথ ফেরেন ৯৮ রান করে। মাত্র ২ রানের জন্য সেঞ্চুরির সুযোগ হাতছাড়া হয় তাঁর। এরপর আর কেউই রান তাড়া করে ছুঁতে পারেননি। ৩০৪ রানে শেষ হয়ে যায় অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস। এদিনের জয়ের পর শেষ একদিনের ম্যাচ কার্যত ফাইনালে পরিণত হল।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button