Sunday , September 22 2019
Rohit Sharma
বিধ্বংসী মেজাজে রোহিত শর্মা, ছবি – সৌজন্যে – ট্যুইটার – @BCCI

ফের বিধ্বংসী রোহিত, ২ দিনেই সিরিজ জিতল ভারত

৩ ম্যাচের টি-২০ সিরিজ। তার আবার প্রথম ২টি ম্যাচ ছিল পরপর ২ দিন। যা সাধারণত দেখা যায়না। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে গিয়ে ক্যারিবিয়ানদের মাঠে, তাদেরই আবহাওয়ায় বিধ্বংসী হল ভারত। প্রথম ম্যাচ হেলায় জেতার পর দ্বিতীয় ম্যাচও হেলায় জিতছিল। ২০ ওভারে ভারতের ১৬৭ রানের জবাবে ১৬৮ করলে জিতবে। এই পরিস্থিতিতে ব্যাট করতে নেমে উইকেট বাঁচানোর লড়াইতে রান থমকে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের।

১৫.৩ ওভার খেলে ৪ উইকেট হারিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ যখন ৯৮ তখনই বৃষ্টি নামে। তখনও ২৭ বলে তাদের করতে হত ৭০ রান। এই পরিস্থিতিতে বৃষ্টি নামে। ফলে ডাকওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতির নিয়মে ভরসা করতে হয় আম্পায়ারদের। ডিএল নিয়মে ভারত জেতে ২২ রানে। ম্যাচের সেরা হন ক্রুণাল পাণ্ডিয়া।

শনিবার জয়ের পর ভারত রবিবার জিতলেই সিরিজ পকেটে পুরতে পারবে। অন্যদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের জন্য এটা ছিল বাঁচা মরার লড়াই। এই অবস্থায় টস জিতে বিরাট কোহলি প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন। হয়তো পরের দিকে বৃষ্টির আশঙ্কা থাকাতেই এই সিদ্ধান্ত। মাঠে নেমে যথারীতি ভয়ংকর হয়ে ওঠেন রোহিত শর্মা। একা হিটম্যান রোহিতের ব্যাট থেকেই আসে ৬৭ রান। ৩টি ছক্কা ও ৬টি চার মারেন তিনি।

শিখর ধাওয়ান ২৩ রান করে আউট হন। কিন্তু এই ২ ব্যাটসম্যান মিলে ভারতকে শুরুতেই ভাল জায়গায় দাঁড় করিয়ে দেন। এরপর রোহিত ৬৭ রানে ফেরার পর বিরাট কোহলি হাল ধরেন। ঋষভ পন্থ যদিও এদিনও ব্যর্থ। মাত্র ৪ রান করে ফেরেন তিনি। ব্যর্থ মণীশও। করেন ৬ রান। কোহলি ফেরেন ২৮ রান করে। শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থেকে ক্রুণাল পাণ্ডিয়া করেন ২০ রান। জাদেজা করেন ৯ রান। ভারত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে তোলে ১৬৭ রান।

বিশাল রানও নয়। আবার কমও নয়। বিশ্বজুড়ে টি-২০ খেলে খেলে ক্রিকেটাররা এখন জানেন এই রান কীভাবে তাড়া করতে হয়। কিন্তু শনিবারের জুজু বোধহয় রবিবারও চেপে বসেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের মনে। ফলে তারা রান তোলার চেয়ে উইকেট বাঁচানোয় বেশি জোর দেয়। এর একটা বড় কারণ এদিনও শুরুতেই ২টি উইকেট হারায় উইন্ডিজ। লিউইস ০ ও নারিন ৪ রান করে ফেরেন।

এখান থেকে ম্যাচের হাল ধরেন পুরান ও পাওয়েল। পাওয়েল ৩৪ বলে ৫৪ রান করলেও পুরান ৩৪ বলে করেন ১৯ রান। এঁরা ফেরার পর পোলার্ড ও হেটমায়ার হাল ধরেন। আর তখনই নামে বৃষ্টি। ভারতের ক্রুণাল পাণ্ডিয়া এদিন ব্যাট হাতে ২০ রান ও বল হাতে ৩ ওভার ৩ বলে ২৩ রান দিয়ে ২ উইকেট তোলার সুবাদে ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ হন। ৩ ম্যাচের সিরিজের প্রথম ২টি জিতে ভারত ১ ম্যাচ বাকি থাকতেই সিরিজ জিতে নেয়। শেষ ম্যাচ আগামী মঙ্গলবার।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *