Health

লকডাউন করোনা রোখা ছাড়াও মানুষের প্রাণ বাঁচিয়েছে অন্যভাবে

ভারত সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ করোনা রুখতেই লকডাউনের পথে হাঁটে। কিন্তু তাতে আরও একটি বিশাল লাভ হয়েছে। এমনই জানাচ্ছেন গবেষকেরা।

করোনা রুখতে লকডাউনের পথে হেঁটেছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। ভারতেও করোনার প্রথম ঢেউ রুখতে দেশজুড়ে লকডাউন এবং দ্বিতীয় ঢেউ রুখতে রাজ্যে রাজ্যে লকডাউন হয়েছে।

গবেষকেরা বলছেন এতে আরও এক বিরাট লাভ হয়েছে। অনেক মানুষ একদম অন্য একটি কারণ থেকে প্রাণে বেঁচে গেছেন। যে সম্বন্ধে জানিয়েছেন অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

গবেষকদের দাবি, লকডাউনের ফলে উল্লেখযোগ্যভাবে কমেছে মারণ ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ। এগুলির মধ্যে রয়েছে নিউমোনিয়া, মেনিনজাইটিস ও সেপসিস।

এগুলি ২০২০ সালের আগের ২ বছরে যত মানুষের শরীরে প্রবেশ করে তাঁদের মৃত্যু পর্যন্ত ঘটিয়েছে, সেইসব ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ ২০২০-তে উল্লেখযোগ্যভাবে কমেছে। আর তা হয়েছে লকডাউনের ফলে।

সারা বিশ্বেই এই মারণ ব্যাকটেরিয়াগুলি মানুষকে অসুস্থ করেছে। এমনকি মৃত্যু পর্যন্ত ঘটিয়েছে। গবেষণায় দেখা গেছে ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে মে মাসের মধ্যেই এই সব ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ ৬ হাজারের ওপর কমেছে। যা তার আগের ২ বছরে দেখা গিয়েছিল।

গবেষণায় বলা হয়েছে যেখানে যেখানে লকডাউন ঘোষণা হয়েছে সেখানেই নিউমোনিয়া ৪ সপ্তাহে ৬৮ শতাংশ কমেছে। আরও দেখা গেছে লকডাউন ঘোষণার পর ৮ সপ্তাহে তা কমেছে ৮২ শতাংশ।

ফলে লকডাউন করোনা চেন ভাঙতে যেমন সাহায্য করেছে তেমনই সকলের অলক্ষ্যে এইসব মারণ ব্যাকটেরিয়ার হাত থেকও মানুষকে অনেকাংশে রক্ষা করেছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More