Health

পোস্ত খেতে ভালবাসেন, পোস্তই কিন্তু বড় ক্ষতি ডেকে আনতে পারে

পোস্ত খেতে কার না ভাল লাগে। কিন্তু এই সুস্বাদু পোস্তই জীবনে বড় ক্ষতি ডেকে আনতে পারে। শরীরের জন্য কখন পোস্ত একদম ভাল নয় জানাল গবেষণা।

বাঙালির পোস্ত ছাড়া চলেনা। পোস্তর বড়া, কাঁচা পোস্ত, পোস্ত আলুর ঝোল, পোস্ত বাটা, আলুপোস্ত, পোস্ত ঝিঙে, পটল পোস্ত এবং এমন নানা পোস্তর হাজারো পদের নাম শুনলেই অনেকের জিভে জল এসে পড়ে। এই সুস্বাদু পোস্ত কিন্তু শরীরের জন্য ক্ষতিও ডেকে আনতে পারে। এমনই দাবি করছেন গবেষকেরা।

লখনউয়ের কিং জর্জেস মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটির একদল গবেষক দাবি করেছেন পোস্ত ভাল লাগে বলে বেশি পরিমাণে খেয়ে ফেললে হার্ট রেট কমে যেতে পারে।

গায়ে ছোট ছোট দানার মত বার হতে পারে। চামড়ার সমস্যা শুরু হয়ে যেতে পারে। বেশি পোস্ত শরীরের জন্য বিষাক্ত হয়ে সামনে আসতে পারে।

শুধু পোস্ত বলেই নয়, গবেষকেরা দাবি করেছেন একটু বেশি পরিমাণে জায়ফলও ভয়ংকর হতে পারে। একদিনে সর্বোচ্চ ৫ গ্রামের বেশি জায়ফল শরীরে প্রবেশ করলে বমি শুরু হতে পারে। অলীক কিছু চোখের সামনে ভাসতে শুরু করতে পারে। যাকে বলা হয় হ্যালুসিনেশন। এছাড়া হার্ট বিট বাড়িয়ে দিতে পারে অতিরিক্ত জায়ফল।


একইভাবে হরিতকী শরীরে বেশি প্রবেশ করলে বিপদ আছে। এতে চামড়ার একটা জ্বলন অনুভূত হতে পারে। এমনকি রান্নায় অনেকে পেঁপের বীজ বা জাট্রোফা বীজ ব্যবহার করেন স্বাদ বাড়াতে। এগুলিও অতিরিক্ত শরীরে প্রবেশ করলে আমাশয় এবং বমি ভাব শুরু হয়ে যেতে পারে।

তাই রান্নাঘরের অতি চেনা এবং আপাত দৃষ্টিতে মামুলি মশলাও কিন্তু অচিরেই ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button