Health

দিন মেনে স্বাদ, গন্ধের অনুভূতি হারাচ্ছেন আক্রান্ত, দাবি গবেষকদের

করোনা উপসর্গের একটি মনে করা হচ্ছে স্বাদ ও গন্ধের অনুভূতি হারিয়ে যাওয়া। গবেষকরা জানাচ্ছেন তা হচ্ছে আক্রান্ত হওয়ার পর নির্দিষ্ট দিনে।

করোনা সংক্রমণ হয়েছে কিনা বুঝবেন কীভাবে? এ প্রশ্ন অনেকের। সর্দি, কাশি, জ্বর তো অন্য কারণেও হতে পারে। যদিও এগুলি করোনার উপসর্গ বটে। এমনটা হলে নিজেকে আলাদা করাই নয়, চিকিৎসকের পরামর্শ নিতেও বলা হচ্ছে প্রশাসনের তরফে। এদিকে করোনার প্রকোপ বৃদ্ধির পর থেকেই একটা বিষয় শোনা যাচ্ছিল যে করোনা আক্রান্ত কোনও ব্যক্তি তাঁর স্বাদ, গন্ধের অনুভূতি পাচ্ছিলেন না। বিষয়টি নিয়ে গবেষণার পর মার্কিন গবেষকেরা একটি বিষয় সামনে এনেছেন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন আগেই তাদের তালিকায় এই স্বাদ, গন্ধের অনুভূতি হারানোকে করোনার উপসর্গ হিসাবে মান্যতা দিয়েছিল। এবার একটি নতুন গবেষণা বলছে, অনেক ক্ষেত্রেই এই স্বাদ ও গন্ধের অনুভূতি চলে যাওয়া করোনায় আক্রান্ত হওয়ার তৃতীয় দিনে প্রকাশ পাচ্ছে। ফলে এটাও এখন একটা উপসর্গ হিসাবে সামনে উঠে আসছে যে আক্রান্ত হওয়ার তৃতীয় দিনে স্বাদ, গন্ধ হারাচ্ছেন মানুষজন।

গবেষকেরা এও জানিয়েছেন যে এই স্বাদ ও গন্ধের অনুভূতি হারানোর মাত্রা থেকে তাঁর দেহে করোনার অন্য উপসর্গগুলি কতটা ভয়াবহ আকার নেবে তা বোঝা যাচ্ছে। গন্ধের অনুভূতি সম্পূর্ণ বিলোপ পেলে তাঁর শ্বাসকষ্ট, জ্বর ও কাশি চরম আকার নিতে পারে বলেই সতর্ক করেছেন গবেষকেরা। আমেরিকার সিনসিনাটি বিশ্ববিদ্যালয়ে এই গবেষণা হয়েছে। ১০৩ জন করোনা রোগীকে জিজ্ঞাসাবাদ করে তাঁদের থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এই গবেষণার কাজ করেছেন গবেষকেরা। তবে গবেষকেরা এটাও জানিয়েছেন যে গন্ধ বা স্বাদ হারানো করোনার অনেক উপসর্গের একটি। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button