Wednesday , February 20 2019
Bengali Recipes

মকরসংক্রান্তি স্পেশাল : কড়াইশুঁটির ভাজা পিঠে – রেসিপি

শীতকাল মানেই সবজি বিক্রেতাদের সম্ভারে সবুজ টাটকা মটরশুঁটির উঁকিঝুঁকি। আর সেই মটরশুঁটি দেখলেই গরম গরম ফুলকো মটরশুঁটির কচুরির জন্য মুখটা কেমন নিশপিশ করে ওঠে। ঝাল খাবারের সঙ্গে চাই পিঠে দিয়ে মিষ্টিমুখের সুখ। তাই চেনা পিঠের বাইরে কড়াইশুঁটি দিয়েই বানানো যায় নোনতা-মিঠে পিঠে। আসুন জেনেনি তার রেসিপি।



উপকরণ :

২০০ গ্রাম সবুজ মটরশুঁটি, ৫০ গ্রাম চালের গুঁড়ো, ৫০ গ্রাম চিনি, ৫০ গ্রাম নলেন গুড় ও পাটালি, আধ কাপ সুজি, সাদা তেল, পরিমাণমতো জল, নুন, ৪-৫টা সবুজ এলাচ, আধ চামচ করে জিরে, ধনে, শুকনো লঙ্কা ও গোলমরিচের গুঁড়ো, সাদা কাপড়ের টুকরো

প্রণালী :

১. প্রথমে মটরশুঁটি ছাড়িয়ে জলে সিদ্ধ করে নিন, সিদ্ধ মটরশুঁটি মিক্সির পাত্রে ঢালুন, তাতে একচিমটে নুন আর এক চিমটে চিনি দিন, পাত্রের মুখ বন্ধ করে মটরশুঁটির ঘন মিশ্রণ তৈরি করুন, আগুনে কড়াই গরম করুন, তাতে সিদ্ধ মটরশুঁটি ঢালুন, এবার তাতে দিন চালের গুঁড়ো, ভালো করে দুটোকে মিশিয়ে আঠা মতো হতে দিন, যেন মিশ্রণ পুড়ে না যায়, মিশ্রণটিকে ঠান্ডা হতে দিন

২. নারকেল কুরে নিন, তাওয়ায় এলাচের দানা হাল্কা করে ভেজে গুঁড়ো তৈরি করুন, সুজি আলাদা একটা পাত্রে এক ঘণ্টা মতো ভিজিয়ে রাখুন, গরম তাওয়ায় জিরে, ধনে, শুকনো লঙ্কা ও গোলমরিচের গুঁড়ো হাল্কা ভেজে ভাজা মশলা তৈরি করুন

৩. একটা বড় পাত্রে ময়দা নিন, তাতে ২-৩ চামচ তেল দিন, ভালো করে ময়ান দিন, এতে ময়দার মিশ্রণ মোলায়েম হবে, এবারে ময়দার মিশ্রণে একে একে মটরশুঁটির মিশ্রণ, জল ঝরানো সুজি দিয়ে ভালো করে মেশান, হাতের উল্টো পিঠ দিয়ে ভালো করে নরম মণ্ডকে ঠাসুন, মিশ্রণে এক চিমটে চিনি দিন, অল্প অল্প করে হাতে জল নিয়ে মণ্ড বানান, গন্ধের জন্য এক চিমটে এলাচ গুঁড়ো ও ৩-৪ চিমটে ভাজা মশলা দিন ওই মণ্ডে, মণ্ডটিকে একটি সাদা কাপড়ে মুড়ে রাখুন ১ ঘণ্টা মতো

৪. এবারে কড়াই আগুনে বসান, কড়াই গরম হলে তাতে ঢেলে দিন নারকেল কোরা, ভালো করে কোরা নাড়তে থাকুন, এইসময় আগুনের আঁচ থাকবে মাঝারি, নারকেল কোরায় দিন এক কাপ দুধ, ৩-৪ চামচ মতো পাটালি ভেঙে কড়াইতে দিন, মিষ্টি কম মনে হলে স্বাদ বুঝে গুড় মেশান, পুরো মিশ্রণটিকে ভালো করে নাড়াচাড়া করুন, হাত দিয়ে দেখুন নারকেলের পুর চটচটে হল কিনা, আঠালো হয়ে এলে বুঝবেন পুর তৈরি, উপর থেকে হাফ চামচ এলাচের গুঁড়ো ছড়িয়ে কড়াই আগুন থেকে নামান, পুর ঠান্ডা হতে দিন

৫. এবারে মটরশুঁটির মিশ্রণ থেকে লুচির মত গোলাকার বল তৈরি করুন, বলটিকে চাকির মধ্যে বেলন দিয়ে বেলে চ্যাপ্টা গোল আকার দিন, গোল জায়গার মাঝখানে নারকেলের পুর দিন পরিমাণমত, এরপর ভালো করে মুখ আটকে দিন যাতে পুর বাইরে না বেরিয়ে যায়, পিঠে দেখতে হবে অনেকটা মোমোর মতো

৬. কড়াইতে সাদা তেল গরম করুন, এবার কাঁচা পিঠেগুলোকে তেলে ছেড়ে এপিঠ ওপিঠ হাল্কা লাল করে ভাজুন, ভাজা মুচমুচে হয়ে গেলে নলেন গুড়ে ডুবিয়ে বা শুধু শুধুই গালে ঢুকিয়ে দিন কড়াইশুঁটির ভাজা পিঠে।



Check Also

Gangasagar

গঙ্গাসাগরে পুণ্যার্থীদের ঢল, মধ্যরাত থেকেই শুরু পুণ্যস্নান

মঙ্গলবার মকরসংক্রান্তি। এমন পুণ্য তিথিতে ভোর ৬টা থেকে সন্ধে ৬টা পর্যন্ত স্নানের জন্য সবচেয়ে ভাল সময়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *