World

গামছা উড়িয়ে ৩০০ মানুষের জীবন বাঁচালেন যুবক

বাড়িতে ব্যবহার হওয়া একটি মামুলি গামছা বাঁচিয়ে দিল ৩০০ মানুষের প্রাণ। এক যুবকের উপস্থিত বুদ্ধিতে এত মানুষ রক্ষা পেলেন এই যাত্রায়।

সকালে হাঁটতে বেরিয়েছিলেন ২৮ বছরের এক যুবক। হেঁটে যাচ্ছিলেন ট্রেনলাইনের ধার ধরে। এমনটা প্রায়ই করেন তিনি। বাড়ি রেললাইনের ধারে হওয়ায় এই পথ ধরে যাওয়ার অভ্যাস আছে তাঁর।

যেতে যেতে আচমকাই নজর কাড়ে লাইনের ওপর একটা দাগ। কাছে এগোতে যুবক বুঝতে পারেন দাগ নয় এটা একটা ৮ ইঞ্চির মত ফাটল।

রেললাইনে ফাটলের পরিণতি কি হতে পারে তা তাঁর অজানা নয়। শফিকুল ইসলাম নামে ওই যুবক এও জানতেন যে কিছুক্ষণের মধ্যেই ওই লাইন দিয়ে একটি ইন্টারসিটি এক্সপ্রেস ছুটে যাবে।

তাই বিষয়টি নজরে পড়া মাত্র শফিকুল দেরি না করে ছুটে ফেরেন নিজের বাড়িতে। তারপর বাড়িতে ব্যবহার হওয়া একটি লাল গামছা নিয়ে ফের ছুটে হাজির হন লাইনের ধারে।

ততক্ষণে পঞ্চগড় এক্সপ্রেসকে দূরে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। ছুটে আসছে এই দিকেই। শফিকুল তাঁর হাতে থাকা লাল গামছাটা ওড়াতে শুরু করেন। প্রবলভাবে চেষ্টা করতে থাকেন চালকের দৃষ্টি আকর্ষণ করার।

রেললাইন ধরেই গামছা ওড়াতে ওড়াতে তিনি এগোতে থাকেন ট্রেনের দিকে। চালকও বিষয়টি দেখতে পান কেবিন থেকে। তখন ট্রেন ৮০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় ছুটে যাচ্ছে।

চালক যত দ্রুত ওই গতিতে থাকা ট্রেনকে দাঁড় করানো যায় তার চেষ্টা করতে থাকেন। অত্যন্ত নাটকীয়ভাবে ট্রেনটি ফাটল থেকে সামান্য দূরে দাঁড়িয়ে পড়ে।

চালক নেমে এসে ফাটল দেখে বুঝতে পারেন শফিকুল না থাকলে এক ভয়ংকর ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটে যেত। ট্রেন থাকা ৩০০ জন যাত্রী কার্যত রক্ষা পান শফিকুলের উপস্থিত বুদ্ধিতে। ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার বাংলাদেশের জয়পুরহাটে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button