World

৪টি গাড়ি ও হেলিকপ্টারে টাকা ভর্তি করে পালালেন আফগান প্রেসিডেন্ট

গাড়ি, হেলিকপ্টারে ঠেসে ঢোকানো হয়েছে নগদ অর্থ। তারপর তা নিয়ে দেশে থেকে পালিয়েছেন আফগান প্রেসিডেন্ট। এমনই দাবি করল রাশিয়ার দূতাবাস।

কাবুল দখল সময়ের অপেক্ষা বুঝে আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট পদ থেকে ইস্তফা দেন আশরাফ গনি। তারপর তিনি যে দেশ ছাড়ছেন তাও রটে গিয়েছিল।

দেশের মানুষের এই দুর্দিনে এভাবে চম্পট দেওয়ার খবরে দেশের মানুষ ধিক্কার দিতে শুরু করেছিলেন আশরাফ গনিকে। তার মধ্যেই এবার বোমা ফাটাল রাশিয়ার দূতাবাস।

কাবুলে রাশিয়ার দূতাবাসের তরফে দাবি করা হয়েছে আশরাফ গনি শুধু দেশই ছাড়েননি, তিনি ৪টি গাড়ি ও ১টি হেলিকপ্টারে নগদ অর্থ ঠেসে যত পেরেছেন ঢুকিয়ে চম্পট দেন।

৪টি গাড়ি ও হেলিকপ্টার মিলিয়েও নগদ গোঁজার জায়গা ছিল না। ফলে কিছু নগদ ফেলেই পালাতে হয় আশরাফ গনিকে। এমন পরিস্থিতি হয় যে দেশ থেকে পালানোর সময় বিমানবন্দরের টারম্যাকে অনেক নগদ অর্থ পড়ে ছিল।


সেগুলি অনেক চেষ্টা করেও আর ঠেসে হেলিকপ্টার বা গাড়িতে ভরা সম্ভব হয়নি। রাশিয়ার দূতাবাসের তরফে এমনই দাবি করা হয়েছে।

আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রীও গনির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। ট্যুইট করে তিনি দাবি করেছেন যে আশরাফ গনি তাঁদের হাত পা বেঁধে রেখেছিলেন। গনি দেশ বিক্রি করে পালিয়েছেন বলেও তোপ দাগেন আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রী।

এদিকে কাবুলে এখন হাহাকার চলছে। হাজার হাজার মানুষ বিমানবন্দরের দিকে ছুটছেন। কিন্তু সেখান থেকে সব বাণিজ্যিক উড়ান বন্ধ করা হয়েছে। শহরে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে তালিবান। আফগান নাগরিকরা এখন শুধু চাইছেন পরিবার নিয়ে কোনোক্রমে দেশ ছাড়তে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button