State

অবরোধ আন্দোলন প্রত্যাহার করলেও দাবিতে অনড় ভাঙড়

ভাঙড়ের অবরোধ আন্দোলন তুলে নেওয়া হল। শুক্রবার বেলায় একথা জানান ভাঙড় আন্দোলনের নেতা অলীক চক্রবর্তী। গ্রামবাসীদের সমস্যার কথা মাথায় রেখেই অবরোধ আন্দোলন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে তাঁরা তাঁদের দাবিদাওয়া থেকে সরছেন না বলেও স্পষ্ট করে দিয়েছেন অলীকবাবু। প্রশাসন গ্রামে পুলিশ ঢুকিয়ে কোনও জোর জবরদস্তি করলে ফের আন্দোলন শুরু হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। এদিন তিনি আরও জানান, তাঁদের দাবির সপক্ষে আগামী সোমবার কলকাতায় মহামিছিল করবেন তাঁরা। কলেজ স্কোয়ার থেকে মিছিল শুরু হবে। এদিন তাঁদের দাবিগুলোও পরিস্কার করে দিয়েছেন অলীক চক্রবর্তী। যে পাওয়ার গ্রিড নিয়ে সমস্যার সূত্রপাত সেই পাওয়ার গ্রিডের কাজ পাকাপাকি ভাবে বন্ধ ঘোষণার দাবি জানিয়ে তিনি বলেন এ নিয়ে সরকারের সঙ্গে শান্তিপূর্ণ আলোচনা চান তাঁরা। সেইসঙ্গে তাঁদের যেসব নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে তাদেরও ছাড়তে হবে বলে এদিন দাবি করেন তিনি। এদিকে গত বুধবার থেকে ভাঙড় কিছুটা হলেও স্বাভাবিক হতে শুরু করার পর সন্ধ্যায় ভাঙড় আন্দোলনের নেতৃত্বে থাকা নকশাল নেত্রী শর্মিষ্ঠা চৌধুরীর গ্রেফতারি ফের অবস্থা উত্তপ্ত করে তোলে। ভাঙড়ের বিভিন্ন গ্রামে রাস্তা অবরোধ করে শুরু হয় আন্দোলন। বৃহস্পতিবার প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন এবং শুক্রবার সকালেও খামারাইট, মাছিভাঙা, পদ্মপুকুর, উড়িয়াপাড়া, বকডোবা, পোলেরহাট সহ বিভিন্ন গ্রামে তা বজায় ছিল। শুক্রবার হাড়োয়া রোডের ১৮টি জায়গায় গাছের গুঁড়ি, ইটের অস্থায়ী দেওয়াল তুলে রাস্তা অবরোধ করা হয়। পরে অবশ্য অলীক চক্রবর্তী অবরোধ তুলে নেওয়ার কথা জানাতে ধীরে ধীরে সেসব সরিয়ে রাস্তা পরিস্কার করে দেন গ্রামবাসীরাই।

 

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button