State

মরসুমের প্রথম তুষারপাত সুন্দরী দার্জিলিংয়ে, কি বলছে বছর শেষের পূর্বাভাস

মেঘলা আকাশ যে দক্ষিণবঙ্গেই রয়েছে এমনটা নয়। দার্জিলিংয়েও মেঘলা আকাশ ছিল। কিন্তু সেই মন খারাপ করা আবহাওয়ায় মন ভাল হয়ে গেল পর্যটকদের।

মরসুমের প্রথম তুষারপাত দেখল শৈল শহর দার্জিলিং। বুধবার সকাল থেকেই তুষারপাত শুরু হয়। পর্যটকরা ঘুম ভেঙে দেখেন আকাশ থেকে ঝরে পড়ছে পেঁজা তুলোর মত বরফ।

দার্জিলিং-এ গিয়ে তুষারপাত দেখার আনন্দ বলে বোঝানোর নয়। অনেকেই শীতে বরফ দেখার আশায় ছুটলেও তা শিকেয় ছেঁড়ে না। অবশেষে মানুষ দার্জিলিং-এর তুষারপাত দেখলেন প্রাণভরে।

পর্যটকদের অনেকেই ফ্রেম বন্দি করেন এই মনোরম দৃশ্য। বরফে ঢেকেছে টাইগার হিল, বাতাসিয়া, জোড়বাংলোও। সাদা বরফে ঢাকা পড়েছে রাস্তাঘাট, ঘরবাড়ি, এমনকি গাড়িগুলিও।

যা পরিস্থিতি তাতে তুষারপাত অব্যাহত থাকতে পারে। আগামী ২ দিনই দার্জিলিং-এ বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। পাহাড়ি এলাকায় এ সময় তা তুষারপাতে রূপান্তরিত হতে বেশি সময় নেবে না। আর তা যদি হয় তাহলে যেসব পর্যটক এখন দার্জিলিংয়ে রয়েছেন তাঁদের চোখ আর মনের আশা মিটবে।

দার্জিলিং লাগোয়া সিকিমে প্রবল তুষারপাত হয়েছে। সেখানে অধিকাংশ পাহাড় তুষারে ঢাকা পড়েছে। সেই পরিস্থিতির প্রভাব পড়েছে দার্জিলিং-এও।

এদিকে দার্জিলিংয়ে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিরও পূর্বাভাস রয়েছে। ফলে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখা যেমন এখন কঠিন হবে, তেমনই তুষারপাত দেখার আশ মিটবে।

বড়দিনের দিন সান্দাকফুতে তুষারপাত হয়। সেটাই ছিল সান্দাকফুতে এই মরসুমের প্রথম তুষারপাত। এদিন হল দার্জিলিং-এ প্রথম তুষারপাত।

এদিন সান্দাকফুতেও তুষারপাত হয়েছে। আকাশ থেকে পেঁজা তুলোর মত ঝিরঝির করে নেমে আসা বরফের সঙ্গে খেলা করতে অনেকেই ঘর ছেড়ে বেরিয়ে আসেন।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.