Entertainment

প্রীতি জিন্টা দেখালেন তাঁর ‘করোনা প্রতিভা’

করোনা গোটা বিশ্বের কাছে এখন এক উদ্বেগের নাম। অবশ্য করোনার মধ্যে বেশ কিছু প্রতিভার বিকাশও হল হয়তো কিছু মানুষের মধ্যে।

মুম্বই : করোনা ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে সিনেমা হল থেকে জিম, ফান পার্ক থেকে বিউটি পার্লার, এমনকি চুল কাটার সেলুন পর্যন্ত ব্রাত্য হয়ে গেছে। প্রথমে ছিল বন্ধ। তারপর সরকার সেলুনের দরজা খুললেও সেখানে হাজিরা সংখ্যায় নগণ্য। কারণ বোধহয় ২টো। এক করোনা সেলুন থেকে ছড়াচ্ছে এমন তত্ত্ব সামনে আসার পর অনেকেই সেলুন এড়িয়ে যাচ্ছেন। দুই, পরিবারের তরফ থেকেও করোনার ভয়ে সেলুনে যেতে মানা করা হচ্ছে। তাহলে উপায়? চুল তো আর করোনার ভয়ে বেড়ে ওঠা বন্ধ করেনি। মাথা ভর্তি চুল ছাঁটবেন কীভাবে? এ কাজে করোনার সময় দেখা গেছে বাড়ির গৃহিণীরা এগিয়ে এসেছেন।

বাড়ির গৃহিণীরা যে এমন চুল কাটতে জানেন তা হয়তো তাঁরা নিজেরাও জানতেন না। কিন্তু কিছুটা স্বাভাবিক বুদ্ধি দিয়ে আর কিছুটা ইউটিউবকে ভরসা করে তাঁরা শিখে ফেলেছেন চুল কাটার প্যাঁচ পয়জার। সেটাই তাঁরা ব্যবহার করছেন স্বামীর ওপর। সে আমজনতার ছাপোষা পরিবার থেকে ফুটবল কিংবদন্তী রোনাল্ডোকেও তাঁর বান্ধবী বাড়িতে চুল কেটে দিয়েছেন। আবার বলিউড তারকা প্রীতি জিন্টাও তাঁর হাতের মুনশিয়ানা পরখ করেছেন তাঁর স্বামীর ওপর।

প্রীতি জিন্টা তাঁর স্বামী জিন গুডএনাফ-এর চুল কেটে দিয়েছেন। সে ভিডিও তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোডও করেন। বেশ পটু হাতেই চুল কাটতে দেখা যায় তাঁকে। প্রীতির নিজের দাবি, স্বামী তাঁকে এই সুযোগ দেওয়ার পর তিনি তাঁর চুল কেটে দেন বাড়িতে। প্রীতির মতে এটা তাঁর করোনা প্রতিভা। অর্থাৎ করোনার সময় তাঁর এই প্রতিভার বিকাশ ঘটল।

প্রীতির নিজের দাবি তাঁর মধ্যে একজন হেয়ার স্টাইলিশ লুকিয়ে আছে। তিনি এ বিষয়ে যথেষ্ট দক্ষ বলেও মনে করেন প্রীতি। তাঁর ভিডিও দেখে অনেক কমেন্টও করেন নেটিজেনরা। একজন লিখেছেন প্রীতিকে দেখে একদম পেশাদার মনে হচ্ছে। তার উত্তরেই প্রীতি লেখেন এটা তাঁর ‘করোনা ট্যালেন্ট’! সিনেমার পর্দায় প্রীতিকে শেষবার দেখা গিয়েছে ২০১৮ সালের ‘ভাইয়াজি সুপারহিট’ সিনেমায়। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button