World

১২৬ বছর ধরে শিকল বাঁধা অবস্থায় বন্দিদশা কাটাচ্ছে একটি বটগাছ

কেউ কখনও শুনেছেন যে গাছকেও গ্রেফতার করা হতে পারে। কিন্তু সেটাই তো হয়েছিল ১২৬ বছর আগে। এখনও সেই গাছ শিকলে বাঁধা অবস্থায় রয়েছে।

একটি বটগাছ। অন্য বটগাছের সঙ্গে সেটির কোনও ফারাক নেই। ফারাক কেবল একটিই, অন্য বটগাছ শিকল দিয়ে বাঁধা থাকেনা। তাদের কেউ গ্রেফতার করেনা। কিন্তু এ গাছ ১২৬ বছর আগে সেই যে গ্রেফতার হয়েছিল, তারপর থেকে এখনও গ্রেফতার অবস্থাতেই রয়ে গেছে।

শিকলে বাঁধা অবস্থায় তার বছরের পর বছর কেটে চলেছে। এখন এই গ্রেফতার হওয়া বটগাছ দেখতে পর্যটকের ভিড় জমে এখানে। চারধারে শিকল দিয়ে বাঁধা বটগাছকে চাক্ষুষ করে ছবি তুলে নিয়ে যান তাঁরা। গাছের গায়েও লেখা রয়েছে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

কেন এমন আজব ফরমান? কে এবং কেন এভাবে একটি গাছকে গ্রেফতার করেছিলেন? এই ঘটনা ঘটেছিল ১৮৯৮ সালে।

এখন পাকিস্তানের লান্ডি কোটাল আর্মি ক্যান্টনমেন্ট তখন ব্রিটিশ শাসিত ভারতের অংশ। সেখানে এক ব্রিটিশ আধিকারিক ছিলেন, নাম জেমস স্কুইড।


তিনি একদিন প্রচুর মদ্যপান করে মদ্যপ অবস্থায় গাছটির কাছ দিয়ে যাচ্ছিলেন। আর ঠিক সেই সময় তাঁর মনে হয় ওই বটগাছটি তাঁর পিছু নিয়েছে। ক্রমশ তাঁর পিছু ধাওয়া করে এগিয়ে আসছে সেটি।

তিনি সুরক্ষিত বোধ করেননা। বটগাছটি তাঁর কোনও ক্ষতি করতে পারে মনে করে তিনি দ্রুত ওই বটগাছকে গ্রেফতার করার নির্দেশ দেন।

আধিকারিকের নির্দেশ তো মানতেই হবে। বটগাছকে গ্রেফতার করা হয়। শিকল দিয়ে আষ্টেপৃষ্ঠে বেঁধে ফেলা হয় গাছকে। সেই যে সেই বটগাছটি গ্রেফতার হয়, তারপর ১২৬ বছর কেটে গেলেও তার বন্দিদশা কাটেনি। এখনও শিকল দিয়ে চারধার থেকে বাঁধা অবস্থায় বছরের পর বছর কাটিয়ে চলেছে এই বটগাছ।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button