World

২১ জনকে নিয়ে বরফের তলায় ঢাকা পড়ল পর পর গাড়ি

প্রতিটি গাড়িতেই পর্যটক রয়েছেন। রাস্তা দিয়ে এগোচ্ছে গাড়ি। আচমকাই শুরু হল তুষারঝড়। গাড়িগুলো নিমেষে ঢাকা পড়ে গেল বরফের পুরু চাদরে।

পাহাড়ে তুষারপাত হচ্ছে। একথা কানে যেতেই সারি দিয়ে পর্যটকরা হাজির হতে থাকেন মুরীতে। পাহাড়ি এলাকায় তখন তুষারপাত হচ্ছে। একের পর এক করে প্রায় দেড় লক্ষ গাড়ি হাজির হয় মুরী ও গালিয়াত এলাকায়।

পাহাড়ি এলাকাগুলি বরফে তখন ঢাকা। পর্যটকরা মেতে ওঠেন বরফ নিয়ে খেলা ও আনন্দ করায়। কিন্তু পূর্বাভাস সুবিধের ছিলনা। তুষারঝড়ের সম্ভাবনা তৈরি হতে কোনও গাড়িকে আর শুক্রবার থেকে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছিল না মুরীতে। উল্টে যাঁরা গাড়িতে গিয়েছিলেন, তাঁদের গাড়ি নিয়ে ফিরতে বলা হয় প্রশাসনের তরফে।

গাড়িগুলি পর্যটকদের নিয়ে ফিরতে থাকে। এরমধ্যেই শুক্রবার রাতে শুরু হয় প্রবল তুষারঝড়। বেশকিছু গাড়ি রাস্তায় থমকে যায়। স্থানীয়রা ওই প্রবল প্রতিকূল আবহাওয়া উপেক্ষা করেই পুরু বরফে ভরা রাস্তায় থমকে যাওয়া গাড়িগুলিতে থাকা পর্যটকদের কাছে গরম পোশাক, কম্বল, খাবার পৌঁছে দেন। কিন্তু তাও সকলের কাছে পৌঁছনো সম্ভব হয়নি।

বেশ কয়েকটি গাড়ি তুষারঝড়ের জেরে বরফের তলায় হারিয়ে যায়। সেখান থেকে বার হওয়ার সময়ও পাননি পর্যটকেরা। বরফের তলায় হারিয়ে যাওয়া গাড়িগুলির মধ্যেই মৃত্যু হয় ২১ জন পর্যটকের। প্রশাসনের তরফে বরফ কাটার মেশিন এনে রাস্তা ও গাড়ির গা সাফ করার চেষ্টা করা হয়।

ঘটনাটি ঘটেছে পাকিস্তানের জনপ্রিয় পাহাড়ি এলাকা মুরীতে। যেখানে শীতের দিনে তুষারপাত দেখতে অনেকেই হাজির হন বিভিন্ন প্রান্ত থেকে। সেখানেই প্রাণ গেল ২১ জনের। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.