World

কেবল ভুলো মনের মানুষজনই থাকতে পারেন এই সাজানো গ্রামে

এ গ্রাম কেবল ভুলো মনের মানুষের জন্য। ভুলো মনের বা ডিমেনশিয়া রোগীরাই কেবল এই সুন্দর করে সাজানো গ্রামে থাকার সুযোগ পান।

এমনও গ্রাম হয় যেখানে কেবল ভুলো মনের মানুষজন থাকতে পারেন। ডিমেনশিয়া এমন এক উপসর্গ যা আদপে নানা রোগের ইঙ্গিত দেয়। ডিমেনশিয়া নিজে কোনও রোগ না হলেও রোগের ইঙ্গিত দেওয়ায় একেও সাধারণ মানুষ একটি রোগ হিসাবেই নেন। ভুলে যাওয়া হল ডিমেনশিয়ার প্রথম উপসর্গ।

ভুলে যাওয়া, কোনও স্মৃতি সেভাবে মনে রাখতে না পারা, ভাবার ক্ষমতা কমে যাওয়া বা কোনও সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে না পারার মত সমস্যায় ভোগেন ডিমেনশিয়া আক্রান্ত মানুষজন।

এঁদেরও স্বাভাবিকভাবে বাঁচার পথ করে দিতে নেদারল্যান্ডসে একটি আলাদা গ্রাম তৈরি করা হয়। আমস্টারডাম থেকে খুব দূরে নয় হজওয়ে নামে এই গ্রামটি।

এখানে সাধারণ মানুষের বেঁচে থাকার সব সুবিধা রয়েছে। রয়েছে রেস্তোরাঁ, দোকানপাট, সিনেমা হল, সেলুন সবই। পৃথিবীর আর পাঁচটা গ্রামের থেকে এদিক থেকে তা আলাদা না হলেও হজওয়ে আলাদা এখানকার বাসিন্দায়। এখানে প্রায় দেড়শো জনের ওপর ডিমেনশিয়ায় আক্রান্ত মানুষজন থাকেন। তাই একে ডিমেনশিয়া গ্রাম বলে ডাকা হয়।


এটি গ্রাম, কিন্তু গ্রাম নয়। আদপে এটি গ্রামের মত দেখতে একটি নার্সিং হোম। এখানে যে দোকানপাট, সিনেমা হল, রেস্তোরাঁ এবং আরও নানা সুবিধা রয়েছে, সেখানে কর্মরত সকলেই সাধারণ মানুষ নন।

তাঁরা ডাক্তার এবং নার্স। ডিমেনশিয়া আক্রান্ত মানুষজনকে একটা সুস্থ, স্বাভাবিক এবং সুন্দর জীবন দেওয়া তাঁদের কাজ। তাঁরা চিকিৎসার পাশাপাশি এটা রোগীদের বুঝতে দেন না যে তাঁদের এভাবে চিকিৎসা চলছে। হজওয়ে নামে এমন এক গ্রাম তৈরি করে ডিমেনশিয়া রোগীদের চিকিৎসায় যুগান্ত আনার এই ভাবনা সারা বিশ্বে সমাদৃত।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button