National

সিনেমার বীর-জারা-কে বাস্তবে দেখল ২ দেশ, তবে কাহিনিতে ছোট্ট ট্যুইস্ট আছে

সিনেমার পর্দায় তো সীমানা পারের প্রেম বারবার ফিরে এসেছে। ২টি মন এক হতে ভেঙেছে কাঁটাতারের বেড়া। এবার সেটাই হল বাস্তবে।

ভারতের ছেলে আর পাকিস্তানের মেয়ে। তাঁদের প্রেম। বিয়ের জন্য কঠিন লড়াই। এমন ঘটনা এক সময় সিনেমার পর্দায় চোখে জলও এনে দিয়েছে অনেক দর্শকের।

এবার ভারতের ছেলে ছুটলেন পাকিস্তানে তাঁর মনের মানুষকে জীবনসঙ্গিনী করতে। ভারত পাক তিক্ত সম্পর্ক তাঁদের সম্পর্ক, আবেগ বা পরস্পরকে কাছে পাওয়ার ইচ্ছা দমাতে পারেনি।

আলাপটা হয়েছিল ফেসবুকে। তখনও বছর ২৩-এর উত্তরপ্রদেশের ফারুখাবাদের জারদৌসি শিল্পী তরুণ জানতেনও না যে তিনি ফেসবুকে যাঁর প্রেমে পাগল হয়ে উঠেছেন তিনি ভারতের নন পাকিস্তানের মেয়ে। পরে সেকথা জানতে পারেন তিনি।

বুঝতে পারেন এ সম্পর্ককে বিবাহবন্ধনের রূপ দেওয়া সহজ হবে না। কিন্তু ওই তরুণীর প্রেমে পাগল মন মানতে চায়নি। মহম্মদ জামাল স্থির করেন তিনি ওই মেয়েকেই বিয়ে করবেন। আর তার জন্য পাকিস্তানে পাড়ি দেবেন তিনি।

যেমন ভাবা তেমন কাজ। পাকিস্তানে পাড়ি দেন জামাল। জুনের ১৭ তারিখে ওই পাক তরুণীকে পাকিস্তানে গিয়ে সেখানেই বিয়ে করেন ওই যুবক। তবে এ কাহিনিতে একটু ট্যুইস্ট আছে। এক্ষেত্রে ঠিক সিনেমার মত হয়নি।

ওই পাক তরুণীর পরিবার এবং জামালের পরিবার এ বিয়ে আনন্দের সঙ্গেই মেনে নিয়েছে। এবার তো স্ত্রীকে নিয়ে ফিরতে হবে বাড়িতে। জামালের বাবা আলিমুদ্দিন জানিয়েছেন ছেলে তাঁর বৌমাকে নিয়ে একটি অস্থায়ী ভিসায় ভারতে ফিরতে চান। তারপর এখানে আসার পর বিশেষ বিবাহ আইন-এর আওতায় ভারতীয় নাগরিক হওয়ার জন্য আবেদন জানাতে পারবেন ওই তরুণী। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.