National

তাঁকে ছোবল মেরেছে কেন, বিষাক্ত সাপকে চরম সাজা দিলেন কৃষক

তাঁকে একটি বিষাক্ত সাপ আচমকা ছোবল মারে। এই অবস্থায় বহু মানুষ আতঙ্কে চিকিৎসাকেন্দ্রে ছোটেন। কিন্তু তিনি একেবারেই অন্য পথ নিলেন।

মাঠে কাজ সেরে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। প্রায় ৫০-এর কোঠায় পৌঁছে যাওয়া পেশায় কৃষক মানুষটি সারাদিন পরিশ্রমের পর ক্লান্ত শরীরে বাড়ির পথে এগোনের সময় মাঝরাস্তায় একটি যন্ত্রণা অনুভব করেন। দেখেন একটি বিষাক্ত সাপ ছোবল মেরেছে তাঁকে।

বিষাক্ত সাপের ছোবল মানে অবশ্যই জীবনহানির ভয়ও থাকে। সময়মত ব্যবস্থা না নিলে বিপদ। সাপের ছোবল খেলে অধিকাংশ মানুষই আতঙ্কে যতটা দ্রুত সম্ভব হাসপাতালে পৌঁছনোর চেষ্টা করেন।

কিন্তু মাতাবাদল সিং সাপের ছোবল খাওয়ার পর চিকিৎসার তোয়াক্কা না করে আগে সেই সাপটিকে পাকড়াও করেন। তারপর ওখানেই দাঁড়িয়ে সেটিকে টুকরো টুকরো করে চিবিয়ে খেয়ে নেন। পুরো সাপটি খেয়ে ফেলার পর নির্বিকার চিত্তে বাড়ির পথে পা বাড়ান।

বাড়িতে ফেরার পর পরিবারের লোকজন দেখেন তাঁর পোশাকে রক্তের ছিটে। জামায় রক্ত এল কোথা থেকে! জানতে চাইলে পরিবারের সকলকে গোটা ঘটনার কথা খুলে বলেন মাতাবাদল সিং।

ততক্ষণে অনেকটা সময় কেটে গেছে। বিষক্রিয়াও শুরু হয়ে যাওয়ার কথা। তাই দেরি না করে দ্রুত তাঁকে নিয়ে চিকিৎসাকেন্দ্রে ছোটেন পরিবারের লোকজন। সেখান প্রাথমিক চিকিৎসার পর সেখান থেকে তাঁকে স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়।

সেখানে চিকিৎসকেরা দ্রুত ব্যবস্থা নেন। যাতে বিষক্রিয়া বেশি ছড়িয়ে পড়তে না পারে। আপাতত তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল বলেই জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বান্দা জেলার সোহাত গ্রামে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.