National

৫ মাসের মধ্যেই ফের কারাগারের বাইরে স্বঘোষিত ধর্মগুরু, সাজার নামে প্রহসন

ফের কারাগারের বাইরে বেরিয়ে পড়ল স্বঘোষিত এক ধর্মগুরু। যে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত। কিন্তু মাঝেমধ্যেই সে জেল থেকে বেড়িয়ে পড়ে প্যারোলে।

সে এক সাংবাদিককে হত্যায় দোষী সাব্যস্ত হয়েছে। যে তার ২ শিষ্যার সঙ্গে বলপূর্বক দৈহিক সম্পর্ক তৈরির দোষে সাজাপ্রাপ্ত, যার একটি মামলায় ২০ বছরের কারাদণ্ড এবং অন্য মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়েছে, সেই স্বঘোষিত ধর্মগুরু যতবার জেল থেকে নানা কারণ দেখিয়ে বেরিয়ে পড়ছে, ততবার বার হওয়ার সুযোগ অন্য সাজাপ্রাপ্তরা পায় কি? এ প্রশ্ন সকলের।

কিন্তু অজানা কারণে নিয়মের ফাঁক গলে ঠিকই সে বেরিয়ে পড়ে গারদের পিছন থেকে। আবার বাইরে বার হলে যাতে তাকে কোনও সমস্যায় না পড়তে হয় সেজন্য তাকে জেড প্লাস সুরক্ষাও দিচ্ছে সরকার।

অনেকেই তাই মনে করছেন সাজার নামে কার্যত প্রহসন চলছে ডেরা সচ্চা সৌদা নামে সংগঠনের প্রধান স্বঘোষিত ধর্মগুরু গুরমিত রাম রহিম সিং-কে নিয়ে।

২০১৭ সালে সাজাপ্রাপ্ত হয় গুরমিত রাম রহিম সিং। হরিয়ানার সুনারিয়া জেলে তাকে রাখা হয়। সেখান থেকে একবার সে বার হয় তার মায়ের অসুস্থতার কথা বলে। একবার পরিবারের সঙ্গে মিলিত হওয়ার জন্য।

৫ মাস আগেই ২১ দিনের জন্য জেলের বাইরে কাটিয়ে এসেছে রাম রহিম। ফের ১ মাসের জন্য জেলের বাইরে বার হওয়ার প্যারোল মঞ্জুর হয়ে গেল। ফলে আবার রাম রহিম ১ মাসের জন্য বাইরে থাকবে। এই সুযোগ বাকি কয়েদিরা পায় কি? সে প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই।

প্রসঙ্গত মনে করা হয় গুরমিত রাম রহিম তার শিষ্যদের ভোটের সময় ভোটদানে প্রভাবিত করার ক্ষমতা রাখে। তাই তাকে হাতে রাখার চেষ্টা করে কোনও কোনও রাজনৈতিক দল। হরিয়ানা, পঞ্জাব, উত্তরপ্রদেশে এই যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত স্বঘোষিত ধর্মগুরুর অনেক অনুগামী রয়েছেন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.