National

মন্দির বন্ধ, তাও বৈকুণ্ঠ একাদশী উপলক্ষে মধ্যরাতে লক্ষ লক্ষ ভক্তের অংশগ্রহণ

মন্দির বন্ধ করতে হয়েছে সংক্রমণ বৃদ্ধির কথা মাথায় রেখে। তারপরেও শ্রী বৈকুণ্ঠ একাদশী উপলক্ষে লক্ষ লক্ষ মানুষ অংশ নিলেন পুজো দেখতে।

রাত ৩টেয় শুরু হয় শ্রী বৈকুণ্ঠ একাদশী উদযাপন। সুপ্রভাত সেবা দিয়ে শুরু হয় সেই পুজো। তারপর পুরোহিতদের বৈদিক মন্ত্রোচ্চারণের মধ্যে দিয়ে হয় পঞ্চামৃত অভিষেক।

বিগ্রহ শ্রী শ্রীনিবাস গোবিন্দকে স্নান করানো হয়। স্নান করানো হয় ভেষজ জল, ফলের রস ও সুগন্ধি ফুলের মিশ্রণ দিয়ে। এরপর হয় আরতি। হয় অলংকরণ।

মন্দিরের বৈকুণ্ঠ দরজা দিয়ে বিগ্রহকে রাজকীয়ভাবে ঘোরানো হয়। সোনার তৈরি বৈকুণ্ঠ দরজা দিয়ে বিগ্রহ ঘুরে আসেন মন্দিরে। এদিন শ্রীকৃষ্ণের সঙ্গে তাঁর ২ স্ত্রী রুক্মিণী ও সত্যভামার পবিত্র বিয়ের অনুষ্ঠানও হয়। পুরোটাই হয় শ্রী বৈকুণ্ঠ একাদশীর দিন।

ISKCON
বেঙ্গালুরুর ইসকন মন্দিরের শ্রী শ্রীনিবাস গোবিন্দ, ছবি – আইএএনএস

এদিন শ্রীকৃষ্ণের ১০৮ নাম জপ করেন ভক্তেরা। সারাদিন ধরে চলে এই নাম জপ। এটাই রীতি। যা এই করোনা আবহেও পালিত হল সাড়ম্বরে। অংশ নিলেন লক্ষ লক্ষ ভক্ত। কিন্তু করোনা বিধি একটুকু লঙ্ঘন হল না।

বেঙ্গালুরুর ইসকন এই দিনটি এভাবেই উদযাপন করে। করোনার কারণে মন্দিরের দরজা ছিল বন্ধ। তাই এবার মন্দির কর্তৃপক্ষ তাদের ওয়েবসাইটে পুরো পূজানুষ্ঠানের লাইভ স্ট্রিমিং-এর ব্যবস্থা করে।

এছাড়া ইউটিউবের ৪৫টি চ্যানেলে এই পূজানুষ্ঠান লাইভ দেখানো হয়। যা দেখেন ৫ লক্ষের ওপর মানুষ। শুধু ভারত বলেই নয়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, সৌদি আরব, রাশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, ইতালি সহ বিশ্বের ৩০টি দেশ থেকে মানুষজন এই লাইভ পুজো দেখেন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.