National

মাসের শেষে চিন্তা বাড়িয়ে ৩ সপ্তাহে সর্বোচ্চ সংক্রমণ

চিন্তার ভাঁজ পুরু করে দেশে দৈনিক সংক্রমণ ৩ সপ্তাহের মধ্যে সবচেয়ে বেশি হল। এদিকে এদিন অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যাও বেড়েছে। কমেছে মৃত্যু।

জুলাই মাসের শেষে পৌঁছে দেশের দৈনিক সংক্রমণ কিন্তু নিচে নামার বদলে উর্ধ্বমুখী। ৩ সপ্তাহের মধ্যে সবচেয়ে বেশি হয়েছে এদিনের সংক্রমণ।

দেশে এদিন করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা হয়েছে ৪৪ হাজার ২৩০ জন। দেশে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ১৫ লক্ষ ৭২ হাজার ৩৪৪ জন।

এদিন ১৮ লক্ষ ১৬ হাজার ২৭৭টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে দেশে। গত দিনের চেয়ে প্রায় ১ লক্ষ বেড়েছে নমুনা পরীক্ষা।

এদিকে আগের দিনের থেকে এদিনের মোট মৃতের সংখ্যা কমেছে। গত একদিনে মৃত্যু হয়েছে ৫৫৫ জনের। দেশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ লক্ষ ২৩ হাজার ২১৭ জন। দেশে মৃত্যুর হার দাঁড়িয়ে আছে ১.৩৪ শতাংশে।


মহারাষ্ট্রে মৃত্যু হয়েছে ১৯০ জনের। কেরালায় একদিনে মৃত্যু হয়েছে ১২৮ জনের। মহারাষ্ট্র ও কেরালা ছাড়া এমন কোনও রাজ্য দেশে নেই যেখানে ৩ অঙ্কে রয়েছে একদিনে মৃতের সংখ্যা।

দেশে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা এদিনও বেড়েছে। এদিন বাড়ল ১ হাজার ৩১৫ জন। দেশে এখন অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ লক্ষ ৫ হাজার ১৫৫ জন। দেশে অ্যাকটিভ রোগীর হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১.২৮ শতাংশ।

এদিকে দেশে সংক্রমিতের চেয়ে এদিন সুস্থ হয়ে হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা কম হয়েছে। গত একদিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪২ হাজার ৩৬০ জন।

দেশে মোট সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ৭ লক্ষ ৪৩ হাজার ৯৭২ জন। সুস্থতার হার কমে দাঁড়িয়ে আছে ৯৭.৩৮ শতাংশে। — ভারত সরকারের দৈনিক আপডেটের সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button