National

থমকে সংক্রমণ, দেশে বাড়ল অ্যাকটিভ রোগী

দেশে দৈনিক সংক্রমণ প্রায় একই জায়গায় থমকে রইল। এদিকে দেশে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা এদিন উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়েছে। তবে কিছুটা কমেছে মৃত্যু।

দেশ থেকে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ এখনও পুরোপুরি বিদায় নেয়নি বলেই জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞেরা। দৈনিক সংক্রমণ কোনও দিন বাড়ছে তো কোনও দিন কমছে। আগের দিনের পর এদিনও দৈনিক সংক্রমণ প্রায় একই জায়গায় থমকে রইল।

দেশে এদিন করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা হয়েছে ৩৯ হাজার ৩৬১ জন। দেশে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ১৪ লক্ষ ১১ হাজার ২৬২ জন।

এদিন ১১ লক্ষ ৫৪ হাজার ৪৪৪টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে দেশে। গত দিনের চেয়ে প্রায় সাড়ে ৫ হাজার কমেছে নমুনা পরীক্ষা।

গত একদিনে মৃত্যু হয়েছে ৪১৬ জনের। দেশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ লক্ষ ২০ হাজার ৯৬৭ জন। দেশে মৃত্যুর হার দাঁড়িয়ে আছে ১.৩৪ শতাংশে।


মহারাষ্ট্রে এদিন মৃত্যু হয়েছে ১২৩ জনের। মহারাষ্ট্র ছাড়া এমন কোনও রাজ্য দেশে নেই যেখানে ৩ অঙ্কে রয়েছে একদিনে মৃতের সংখ্যা।

এদিন দেশে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা অনেকটা বেড়েছে। এদিন বেড়েছে ২ হাজার ৯৭৭ জন। দেশে এখন অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ লক্ষ ১১ হাজার ১৮৯ জন। দেশে অ্যাকটিভ রোগীর হার বেড়ে দাঁড়িয়ে আছে ১.৩১ শতাংশ।

এদিকে দেশে সংক্রমিতের চেয়ে এদিন সুস্থ হয়ে হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা কম হয়েছে। গত একদিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩৫ হাজার ৯৬৮ জন।

দেশে মোট সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ৫ লক্ষ ৭৯ হাজার ১০৬ জন। সুস্থতার হার কমে দাঁড়িয়ে আছে ৯৭.৩৫ শতাংশে। — ভারত সরকারের দৈনিক আপডেটের সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button