National

ছন্দ কেটে দেশে আবার বাড়ল দৈনিক সংক্রমণ, বাড়ল মৃত্যুও

টানা বেশ কয়েকদিন দেশে দৈনিক সংক্রমণ তার আগের দিনের তুলনায় কম হচ্ছিল। কিন্তু সেই ধারাবাহিকতায় ছেদ পড়ল। এদিন দেশে ফের বাড়ল সংক্রমণ। বাড়ল মৃত্যুও।

দেশে করোনা সংক্রমণের ভয়ংকর রূপ এখনও স্তিমিত হয়নি। তবে বৈজ্ঞানিকরা জানিয়ে দিয়েছেন দেশ দ্বিতীয় করোনার ঢেউয়ের চূড়া স্পর্শ করে ফেলেছে। এবার আস্তে আস্তে নামবে সংক্রমণ। সেটাই এখন প্রতিদিন দেখা যাচ্ছিল। কিন্তু টানা নামতে থাকা দৈনিক সংক্রমণে সেই প্রবণতা এদিন বদলে গেল। ফের বাড়ল সংক্রমণ।

এদিন দেশে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা হয়েছে ১ লক্ষ ৩২ হাজার ৭৮৮ জন। দেশে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৮৩ লক্ষ ৭ হাজার ৮৩২ জন।

এদিন ২০ লক্ষ ১৯ হাজার ৭৭৩টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে দেশে। দেশে এদিন নমুনা পরীক্ষা গত দিনের তুলনায় প্রায় ১ লক্ষ বেড়েছে।

এদিকে দেশে গত একদিনে মৃত্যুও বেড়ে ৩ হাজারের উপরে ফিরেছে। আগের দিনই মৃত্যু ৩ হাজারের নিচে নেমেছিল। কিন্তু এদিন ফের তা ৩ হাজারি ঘরে ফেরত গেল।


দেশে এদিন মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ২০৭ জনের। দেশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ লক্ষ ৩৫ হাজার ১০২ জন। দেশে মৃত্যুর হার দাঁড়িয়ে আছে ১.১৮ শতাংশে।

মহারাষ্ট্রে গত একদিনে মৃত্যু হয়েছে ৮৫৪ জনের। এছাড়া উত্তরপ্রদেশে ১৭৫ জনের, কর্ণাটকে ৪৬৪ জনের, কেরালায় ১৯৪ জনের, তামিলনাড়ুতে ৪৯০ জনের, অন্ধ্রপ্রদেশে ১০৪ জনের ও পশ্চিমবঙ্গে ১৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুতে ২ অঙ্কে দাঁড়িয়ে দেশের অনেক রাজ্য।

দেশে এদিনও অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা কমেছে। দেশে অ্যাকটিভ রোগী এদিন কমেছে ১ লক্ষ ১ হাজার ৮৭৫ জন। দেশে এখন অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ১৭ লক্ষ ৯৩ হাজার ৬৫৪ জন। দেশে এখন কমে ৬.৩৪ শতাংশ হয়েছে অ্যাকটিভ রোগীর হার।

এদিকে দেশে সংক্রমিতের চেয়ে এদিন সুস্থ হয়ে হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা অনেক বেশি। গত একদিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ লক্ষ ৩১ হাজার ৪৫৬ জন। দেশে মোট সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৬১ লক্ষ ৭৯ হাজার ৮৫ জন। সুস্থতার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯২.৪৮ শতাংশ। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button