National

দেশে একদিনে মৃত্যু নেমে এল ৭৮-এ

দেশে সংক্রমণ ও মৃত্যু কমছে। গত একদিনে দেশে ৭৮ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা। যা বিগত ৮-৯ মাসে সর্বনিম্ন দৈনিক মৃতের সংখ্যা।

নয়াদিল্লি : জানুয়ারি মাস জুড়েই দেশে দৈনিক সংক্রমণ ২০ হাজারের নিচে ঘুরপাক খেয়েছে। ১০ হাজারি ঘরে ২ বার পৌঁছলেও তা ধরে রাখতে পারেনি দৈনিক সংক্রমিতের সংখ্যা। তবে জানুয়ারির একটা অংশ জুড়ে ১৫ হাজারের নিচে ঘুরেছে সংক্রমণ।

সেই ১৫ হাজারের নিচে ঘুরপাক খাওয়া সংক্রমণের সংখ্যা ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় দিনেই ১০ হাজারের চেয়েও কিছুটা নিচে নেমে যায়। যা অবশ্য বজায় থাকেনি।

এদিন একদিনে সংক্রমিত হলেন ১২ হাজার ৫৯ জন। দেশে ৬ লক্ষ ৯৫ হাজার ৭৮৯টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। আগের দিনের চেয়ে কিছুটা কমেছে নমুনা পরীক্ষা।

রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধির হাত ধরে দেশে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা এদিন ১ কোটি ৮ লক্ষ ২৬ হাজার ৩৬৩ জনে দাঁড়িয়েছে। সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা সংক্রমিতের চেয়ে বেশিই থাকছে অন্য দিনগুলোয়। যদিও তার এদিন ব্যতিক্রম হয়েছে।

এদিন সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা সংক্রমিতের চেয়ে কম হয়েছে। ফলে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা সামান্য হলেও বেড়েছে। দেশে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ৪৮ হাজার ৭৬৬ জনে। একদিনে বেড়েছে ১৭৬ জন। করোনা অ্যাকটিভ রোগীর হার গত দিনের সঙ্গে একই জায়গায় রয়ে গেছে। রয়েছে ১.৩৭ শতাংশে।

নতুন বছরে ২০০-র ঘরেই ছিল দেশে দৈনিক করোনায় মৃত্যু। দৈনিক করোনায় মৃতের সংখ্যা ২০০-র নিচেই থাকছিল। তবে ফেব্রুয়ারিতে ৭ দিনের মধ্যে ৩ দিন তা ১০০-র নিচে রইল।

এদিন মৃত্যু হয়েছে ৭৮ জনের। যা বিগত ৮-৯ মাসে দেখা যায়নি। এদিনের মৃতের সংখ্যার হাত ধরে দেশে মোট করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ৫৪ হাজার ৯৯৬টি। ১.৪৩ শতাংশে রয়েছে মৃত্যুর হার।

এদিকে গত একদিনে দেশে রাজ্য ভিত্তিক যে মৃতের সংখ্যার খতিয়ান সামনে এসেছে তাতে করোনায় মৃত্যুর নিরিখে অনেকটাই পিছিয়ে গিয়েছে বাংলা। গত একদিনে রাজ্যে ১ জনের মৃত্যু পশ্চিমবঙ্গকে অনেকটা পিছিয়ে যেতে সাহায্য করেছে।

গত একদিনে মহারাষ্ট্রে মৃত্যু হয়েছে ২৫ জনের। কেরালায় মৃত্যু হয়েছে ১৬ জনের। দেশজুড়ে ৭৮ জন মৃতের মধ্যে শুধু এই ২ রাজ্যেই মৃত্যু হয়েছে ৪১ জনের।

করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যু যেমন বেড়ে চলেছে তেমনই অন্যদিকে তাল মিলিয়ে বাড়ছে সুস্থ হয়ে ওঠার হার। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১১ হাজার ৮০৫ জন।

এর হাত ধরে দেশে করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ৫ লক্ষ ২২ হাজার ৬০১ জন। সুস্থতার হার গত দিনের সঙ্গে একই রয়ে গেছে। রয়েছে ৯৭.১৯ শতাংশে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button