National

দেশে ১ লক্ষ ৫৩ হাজার পার করল করোনায় মৃত্যু

দেশে এবার ১ লক্ষ ৫৩ হাজারও পার করে গেল করোনায় মৃত্যু। এদিকে দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যুর একটা নিম্নমুখী প্রবণতা বজায় রয়েছে।

নয়াদিল্লি : নতুন বছরের শুরু থেকে প্রধানত ২০ হাজারের নিচেই রয়েছে দেশে দৈনিক সংক্রমণ। এরমধ্যেই নামা ওঠা চলছে। এমনকি ১০ হাজারি ঘরেও এরমধ্যে পৌঁছেছে সংক্রমণ। তবে সেই ঘর ধরে রাখতে পারেনি তা।

মূলত ২০ হাজারের নিচেই ঘুরছে সংক্রমণ। গত একদিনে সংক্রমিত হয়েছেন ১৪ হাজার ৫৪৫ জন। দেশে ৮ লক্ষ ২৪২টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। আগের দিনের চেয়ে কিছুটা বেশি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধির হাত ধরে এদিন ১ কোটি ৬ লক্ষ ২৫ হাজার ৪২৮ জনে দাঁড়িয়েছে দেশে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা। এদিন সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা সংক্রমিতের চেয়ে বেশি হয়েছে।‌

এদিন দেশে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ৮৮ হাজার ৬৮৮ জনে। একদিনে কমেছে ৩ হাজার ৬২০ জন। যার হাত ধরে দেশে এখন করোনা অ্যাকটিভ রোগীর হার ১.৭৮ শতাংশ।


নতুন বছরে ২০০-র ঘরেই ছিল দেশে দৈনিক করোনায় মৃত্যু। এখন তা আরও নেমেছে। দৈনিক করোনায় মৃতের সংখ্যা এখন ২০০-র নিচেই থাকছে।

গত একদিনে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৬৩ জনের। এদিনের মৃতের সংখ্যার হাত ধরে দেশে মোট করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ৫৩ হাজার ৩২ জন। ১.৪৪ শতাংশ মৃত্যুর হার রয়েছে দেশে।

এদিকে গত একদিনে দেশে রাজ্য ভিত্তিক যে মৃতের সংখ্যার খতিয়ান সামনে এসেছে তাতে করোনায় মৃত্যুর নিরিখে পশ্চিমবঙ্গ দেশে এখন অন্য কয়েকটি রাজ্যের সঙ্গে চতুর্থ স্থানে রয়েছে। গত একদিনে মহারাষ্ট্রে মৃত্যু হয়েছে ৫২ জনের। কেরালায় মৃত্যু হয়েছে ২১ জনের। পঞ্জাবে ১৫ জনের এবং পশ্চিমবঙ্গে মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের।

করোনা রোগী ও মৃত্যু যেমন বেড়ে চলেছে তেমনই অন্যদিকে তাল মিলিয়ে বাড়ছে সুস্থ হয়ে ওঠার হার। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৮ হাজার ২ জন।

দেশে এখন মোট করোনামুক্ত মানুষের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ২ লক্ষ ৮৩ হাজার ৭০৮ জন। দেশে সুস্থতার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৬.৭৮ শতাংশ। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button