National

দেশে ৫ লক্ষের নিচে নামল অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা

দেশে মৃত্যু ও সংক্রমণ এক ধাক্কায় অনেকটা নিচে নেমেছিল মঙ্গলবার। ৩০ হাজারি ঘরে নেমে এসেছিল সংক্রমণ। ফের তা বাড়ল বুধবার। বাড়ল মৃত্যুও।

নয়াদিল্লি : অক্টোবর জুড়েই দেশে সংক্রমণ ক্রমশ নিচে নেমেছে। কমেছে মৃত্যুও। নভেম্বর পড়েও সেই অক্টোবরের ধারাবাহিকতা বজায় রয়েছে। গত অক্টোবরে প্রথমে ৭০ হাজার, তারপর ৬০ হাজার হয়ে ৫০ হাজারি ঘর এবং তারপর আরও নেমে ৪০ হাজারি ঘরে ঘুরেছে দৈনিক সংক্রমণ। মাঝে একদিন তো ৩০ হাজারি ঘরেও প্রবেশ করে সংক্রমণ।

সব মিলিয়ে অক্টোবরে দেশে সংক্রমণ ছিল নিম্নমুখী। যা অবশ্যই আশার আলো দেখিয়েছে। নভেম্বরে পড়েও সেই ধারা বজায় রয়েছে। নভেম্বরে গত মঙ্গলবার দ্বিতীয় বারের জন্য ৩০ হাজারি ঘরে নামে দেশে একদিনে সংক্রমণ।

এদিনও সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা নতুন সংক্রমিতের চেয়ে বেশি হয়েছে। গত একদিনে দেশে নতুন করে সংক্রমিতের সংখ্যাটা দাঁড়িয়েছে ৪৪ হাজার ২৮১ জন। গত একদিনে দেশে ১১ লক্ষ ৫৩ হাজার ২৯৪টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। গত দিনের তুলনায় নমুনা পরীক্ষা কিছুটা বেড়েছে।

গত একদিনের রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধির হাত ধরে ৮৬ লক্ষ ৩৬ হাজার ১১ জনে দাঁড়িয়েছে দেশে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা। গত একদিনে সংক্রমিতের সংখ্যার চেয়ে সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা বেশি হওয়ায় দেশে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা আরও কমেছে। দাঁড়িয়েছে ৪ লক্ষ ৯৪ হাজার ৬৩৭ জনে। একদিনে কমেছে ৬ হাজার ৫৫৭ জন।

অক্টোবরে দেশে দৈনিক মৃতের সংখ্যা ৩ অঙ্কের ঘরেই অধিকাংশ সময় থেকেছে। অক্টোবরের শেষে ৫০০-র ঘরেই ছিল দৈনিক মৃত্যু। নভেম্বরের ১ তারিখ থেকে পরপর ৩ দিন ৪০০-র ঘর ধরে রাখে মৃতের সংখ্যা। তারপর ফের তা বেড়ে গিয়েছিল। আবার তা গত একদিনে ৪০০-র ঘরে নেমে গিয়েছিল। তবে গত একদিনে ফের বাড়ল মৃতের সংখ্যা।

একদিনে মৃত্যু হল ৫১২ জনের। এদিনের মৃতের সংখ্যার হাত ধরে দেশে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ২৭ হাজার ৫৭১ জন। ১.৪৮ শতাংশ মৃত্যুর হার রয়েছে দেশে।

করোনা রোগী ও মৃত্যু যেমন বেড়ে চলেছে তেমনই অন্যদিকে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সুস্থ হয়ে ওঠার হার। গত একদিনেও সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা সংক্রমিতের সংখ্যার চেয়ে বেশি হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫০ হাজার ৩২৬ জন। দেশে মোট করোনামুক্ত মানুষের সংখ্যা এদিন দাঁড়িয়েছে ৮০ লক্ষ ১৩ হাজার ৭৮৩ জন। দেশে সুস্থতার হার ৯২ শতাংশের ঘরে রয়েছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button