National

দেশে একদিনে ফের বাড়ল সংক্রমণ

আগের দিন সংক্রমণ অনেকটা নামলেও মাত্র ১ দিনের ব্যবধানে ফের তা বেড়ে গেল। অন্যদিকে সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা তুলনায় আরও বেড়েছে।

নয়াদিল্লি : সেপ্টেম্বরে অস্বাভাবিকভাবে বেড়েছে দৈনিক সংক্রমণ। অক্টোবরে সেই দৈনিক বৃদ্ধি নজরে না পড়লেও খুব একটা নিচেও নামেনি সংক্রমণ। গত মঙ্গলবার যেখানে সংক্রমণ নেমেছিল তা বিগত ১ মাসেরও বেশি সময়ে দেখতে পাওয়া যায়নি। যদিও সেই নিম্নগামী ধারা বজায় রইল না। ফের তা বেড়ে গেল। বিশ্বের করোনা বিধ্বস্ত সব দেশের চেয়েই এখন দৈনিক সংক্রমণে অনেক এগিয়ে ভারত।

মাঝে মাঝে সংক্রমিতের চেয়ে সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা বেশি হওয়া অনেকটা ভরসা যোগাচ্ছে। গত একদিনে নতুন করে সংক্রমিতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭২ হাজার ৪৯ জন। গত একদিনে দেশে ১১ লক্ষ ৯৯ হাজার ৮৫৭টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

গত একদিনের রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধির হাত ধরে দেশে মোট সংক্রমিতের সংখ্যাটা ৬৭ লক্ষের ঘরেই পৌঁছে গেছে। দাঁড়িয়েছে ৬৭ লক্ষ ৫৭ হাজার ১৩১ জন।

সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা সংক্রমিতের চেয়ে এদিন অনেক বেশি হওয়ায় দেশে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ফের কমেছে। দেশে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা এদিন কমে দাঁড়িয়েছে ৯ লক্ষ ৭ হাজার ৮৮৩ জন। একদিনে কমেছে ১১ হাজার ১৪০ জন।

দেশে যখন করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছে তখন বাড়ছে করোনায় মৃত্যুও। মৃতের সংখ্যা প্রায় ১ মাস ধরে ১ হাজারের ওপরই থেকেছে। গত ৪ দিনে কিন্তু সংক্রমণ কমার পাশাপাশি মৃত্যুও উল্লেখযোগ্যভাবে ক্রমহ্রাসমান। ১ হাজারের নিচে রইল মৃত্যু।

গত একদিনে দেশে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৯৮৬ জনের। এদিনের মৃতের সংখ্যার হাত ধরে দেশে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ৪ হাজার ৫৫৫ জন।

করোনা রোগী ও মৃত্যু যেমন বেড়ে চলেছে তেমনই অন্যদিকে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সুস্থ হয়ে ওঠার হার। গত একদিনে অবশ্য সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা সংক্রমিতের সংখ্যার চেয়ে অনেক বেশি।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮২ হাজার ২০৩ জন। দেশে মোট করোনামুক্ত মানুষের সংখ্যা এদিন ৫৭ লক্ষ পার করেছে। মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৭ লক্ষ ৪৪ হাজার ৬৯৩ জন। দেশে সুস্থতার হার ৮৪ শতাংশের ঘরে রয়েছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button