SciTech

রংবেরংয়ের মহাজাগতিক মেঘের মাঝে ঝিকমিক চুমকি, বিশ্বকে চমকে দিল নাসার টেলিস্কোপ

মহাজাগতিক বিস্ময়ের ছবি একের পর এক তুলেই চলেছে নাসার শক্তিশালী টেলিস্কোপ। এবার তারা ফের গোটা বিশ্বকে হতবাক করে দিল চোখ আটকে যাওয়ার মত ছবি পাঠিয়ে।

নাসার শক্তিশালী স্পেস টেলিস্কোপ হাবল বিশ্বকে মাঝে মাঝেই চমকে দেয়। হাবলের তোলা শত শত আলোকবর্ষ দূরের দৃশ্য সাধারণ মানুষকে যেমন হতবাক করে দিচ্ছে, তেমনই মহাজগতকে আরও ভাল করে জানতে বিজ্ঞানীদের প্রভূত সাহায্য করছে।

নাসার সেই হাবল এবার ফের একটা চমক দিল। এবার হাবল একটি ছবি তুলেছে যা পৃথিবী থেকে ৪ হাজার ৩৫০ আলোকবর্ষ দূরের। অর্থাৎ ৪ হাজার ৩৫০ বছর আগে যে মহাজাগতিক ঘটনা ওই স্থানে ঘটেছিল তা এখন দেখতে পাচ্ছেন বিশ্ববাসী।

সেখানে রয়েছে অনন্ত মেঘের কুণ্ডলী। যে মেঘে মিশে গেছে রংয়ের পিঠে রং। লাল, নীল, সবুজ, হলুদ, কমলা রংয়ের মেঘপুঞ্জ জুড়ে আছে ফ্রেম। যার মাঝে মাঝে চিকমিক করছে সাদা, নীল আর বেগুনি রংয়ের ছোট ছোট তারা।

নাসা জানাচ্ছে ওই চিকমিক করতে থাকা মেঘের গায়ে চুমকির মত জিনিসগুলি আসলে এক একটি নক্ষত্র। যে ছবিটি হাবল তুলেছে সেটি বহু দূরের এক নক্ষত্রপুঞ্জ।


যেখানে প্রবল হাওয়া বইছে, অসহ্য গরম। সব মিলিয়ে তৈরি হচ্ছে প্রচুর ধুলো ও গ্যাস। সেটাই মেঘপুঞ্জের চেহারা নিয়ে ছড়িয়ে আছে অনন্ত এলাকা জুড়ে। খেলছে রংয়ের খেলা।

এই নক্ষত্রপুঞ্জটিকে একটি নম্বরের সাহায্যে নামকরণ করেছে নাসা। সেটি বিজ্ঞানীদের কাছে পরিচিত এনজিসি ৬৫৩০ নামে। পৃথিবী থেকে সেই বহু বহু দূরের মহাজাগতিক বিস্ময় বিশ্ববাসীকে এক চোখ ধাঁধানো চমক দিল।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button