Kolkata

ফোনের ক্যামেরায় প্লাস্টার লাগিয়ে তোপ মমতার

তাঁর মুঠোফোনের ক্যামেরায় লাগানো রয়েছে প্লাস্টার। সেটাই এদিন তুলে দেখালেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রকে এদিন পেগাসাস নিয়ে তোপ দাগেন মমতা।

তাঁর ফোন ট্যাপ করা হচ্ছে। তিনি কারও সঙ্গে কথা বলতে পারছেন না। পি চিদম্বরমের সঙ্গে কথা বলতে পারছেন না, শরদ পাওয়ারের সঙ্গে কথা বলতে পারছেন না, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে পারছেন না। তিনি বাধ্য হয়ে তাঁর ফোনের ক্যামেরায় প্লাস্টার করে দিয়েছেন।

এদিন ২১শে জুলাইয়ের বক্তৃতায় তাঁর মুঠোফোনটা তুলে ধরে দেখান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দেখা যায় তাঁর ফোনের ক্যামেরারা ওপর লাগানো রয়েছে লিউকোপ্লাস্ট জাতীয় টেপ।

মমতার অভিযোগ বিধানসভা নির্বাচনের সময় তিনি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে নির্বাচনী কৌশল নিয়ে কথা বলছিলেন। তাও রেকর্ড করে নিয়েছে বিজেপি। এদিন কেন্দ্রকে পেগাসাস নিয়ে নিশানা করেন মমতা।

মমতা এদিন কেন্দ্রীয় সরকারের দিকে তোপ দেগে বলেন, কেন্দ্র নেতা, মিডিয়ার লোক, বিচারপতিদের ফোনেও পেগাসাস ঢুকিয়ে রেখেছে। এমনকি তারা নিজেদের মন্ত্রীদেরও বিশ্বাস করেনা। মন্ত্রীদের কয়েকজনের ফোনেও পেগাসাসের অস্তিত্ব রয়েছে।

এভাবে কেন্দ্র গণতন্ত্রকে ধ্বংস করছে বলেও দাবি করেন মমতা। দেশে গণতন্ত্র নয়, গোয়েন্দাগিরি চলছে। সবার মুখ বন্ধ করার চেষ্টা হচ্ছে। আরও সংবিধান সংস্কার করতে চলেছে বিজেপি। এতে তারা আরও বেশি করে এমনটা করবে।

দেশে পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি নিয়েও কেন্দ্রকে খোঁচা দেন মমতা। পেগাসাসে খরচ না করে এই মূল্যবৃদ্ধি রোধের চেষ্টা করা উচিত কেন্দ্রের বলে জানান তিনি।

দেশের মানুষের স্বার্থে বিজেপি বিরোধী দলগুলির অবিলম্বে একজোট হওয়ার সময় এসেছে বলে আহ্বান জানান তৃণমূলনেত্রী।

Show More
Back to top button