Kolkata

পানশালায় কাজ করতে আপত্তি, ৫ দিন গৃহবন্দি ভিন রাজ্যের তরুণী

কাজ পাওয়ার আশায় কলকাতায় আসা কাল হল পঞ্জাবের এক তরুণীর। ৫ দিন ধরে গৃহবন্দি হয়ে থাকতে হল ওই তরুণীকে। শেষপর্যন্ত প্রতিবেশিদের তৎপরতায় কেষ্টপুরের রবীন্দ্রপল্লি থেকে উদ্ধার করা হয় তাঁকে। ঘটনায় জড়িত ২ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে বাগুইআটি থানার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রের খবর, কাজ পাইয়ে দেওয়ার নাম করে সুদূর পঞ্জাব থেকে কলকাতায় ওই তরুণীকে নিয়ে আসে তারক সাউ নামে এক ব্যক্তি। এনে তোলে কেষ্টপুরের অক্ষয়কুঠি নামে একটি বাড়িতে। বাড়ির মালিকের ছেলে অভিজিৎ দেব তারকের এই কাজে মদত দেয় বলে অভিযোগ। তরুণীর অভিযোগ, এরপর অভিযুক্ত তারক তাঁকে পানশালায় কাজ করার জন্য বারবার চাপ দিতে থাকে। তরুণী রাজি না হওয়ায় তাঁকে একটি ঘরে আটকে রাখা হয়। এমনকি তাঁকে খেতে পর্যন্ত দিত না অভিযুক্ত। মঙ্গলবার রাতে তারক তাঁকে আবার পানশালায় কাজ করার জন্য চাপ দিতে থাকে। কিছুক্ষণ পর সে বাইরে বেরিয়ে যায়। সেই সুযোগে বাড়ির খোলা জানালা দিয়ে সাহায্যের জন্য চিৎকার করতে থাকেন তরুণী। তাঁর আর্তি শুনে প্রতিবেশিরা স্থানীয় থানায় খবর দেন।

পুলিশ এসে ঘরের তালা ভেঙ্গে তরুণীকে উদ্ধার করে। গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্ত তারক সাউকেও। পুলিশ সূত্রের খবর, জেরায় তারক স্বীকার করেছে যে পানশালায় কাজ করার জন্য মেয়েদের ব্যবস্থা করাই ছিল তার পেশা। উদ্ধার হওয়া তরুণীকে বাড়ি ফেরত পাঠাতে তাঁর পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে পুলিশ।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button