Kolkata

স্থগিত দুয়ারে সরকার, ছাত্র সপ্তাহ, রাজ্যে ফের বিধিনিষেধে কড়াকড়ির ইঙ্গিত

সংক্রমণ বাড়ার বিষয়টি ক্রমশ চিন্তার ভাঁজ পুরু করছে। প্রশাসনও বিষয়টি নিয়ে তৎপর। ইতিমধ্যেই রাজ্যের ২টি প্রকল্প দুয়ারে সরকার ও ছাত্র সপ্তাহ স্থগিত করা হয়েছে।

নতুন বছরের শুরুটা খুব একটা স্বস্তির যে হবে না তা গত বছরের শেষটাই বলে দিয়েছিল। নতুন বছর আসার আগেই মুখ্যমন্ত্রী আধিকারিকদের পরিস্থিতি পর্যালোচনা করতে বলেন। তখনই একটা ইঙ্গিত দিয়েছিলেন যে পরিস্থিতি বুঝে কড়া বিধিনিষেধের রাস্তায় হাঁটতে পারে রাজ্যসরকার।

তারপরেই শনিবার জেলায় জেলায় দুয়ারে সরকার-এর যে ক্যাম্প বসেছিল তা আপাতত স্থগিত করেছে রাজ্যসরকার। এছাড়া নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে মুখ্যমন্ত্রী ছাত্র সপ্তাহ উপলক্ষে ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে মিলিত হওয়ার যে কর্মসূচি নিয়েছিলেন তাও আপাতত স্থগিত করা হয়েছে।

পরিস্থিতি যা তাতে সোমবার থেকে আরও কড়া বিধিনিষেধের পথে সরকার হাঁটতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। বন্ধ করা হতে পারে শপিং মল, সিনেমা হল। রাত্রিকালীন কার্ফু জারি হতে পারে।

স্কুল, কলেজও ফের বন্ধ করার রাস্তায় হাঁটতে পারে নবান্ন। এছাড়াও বেশকিছু কড়া বিধিনিষেধের পথে হাঁটতে পারে সরকার। একবারে না হলেও হয়তো ধাপে ধাপে বিধিনিষেধ কড়া করবে সরকার।

শনিবার পয়লা জানুয়ারি পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্যের মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদীর সঙ্গে আলোচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যেভাবে হুহু করে সংক্রমণ বাড়ছে তাতে রাজ্যসরকার যে বিধিনিষেধ আরোপের রাস্তায় হাঁটবে তা অনুমেয় ছিল।

মহারাষ্ট্র বা দিল্লি সহ অন্যান্য রাজ্যে আগেই বিধিনিষেধ আরোপ হয়েছে। এবার সেই পথে হাঁটতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গ বলেই ইঙ্গিত।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.