Kolkata

রাজ্যে ৪০-এর নিচে নামল দৈনিক মৃত্যু

রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণ আগের দিন নেমে এসেছে দেড় হাজারে। এদিনও প্রায় তার কাছেই রইল সংখ্যাটা। এদিন অবশ্য ৪০-এর নিচে নেমেছে মৃত্যু।

কলকাতা : নভেম্বর জুড়ে রাজ্যে সংক্রমণ প্রথমে ৪ হাজার ও তারপর তা নেমে সাড়ে ৩ হাজারের আশপাশে ঘোরাফেরা করেছে। দৈনিক মৃত্যুও মূলত ঘুরেছে ৫০-এর ঘরেই। ডিসেম্বরের শুরুতে ৩ হাজারের ঘরেই ছিল সংক্রমণ। পরে তা নেমে আসে ২ হাজারি ঘরে। গত ২ দিনে আবার সংক্রমণ দেড় হাজারে নেমে এসেছে।

রাজ্যে গত একদিনে সংক্রমিত হয়েছেন ১ হাজার ৬৫৩ জন। গত দিনের তুলনায় কিন্তু নমুনা পরীক্ষা এদিন অনেক বেড়েছে। নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৪০ হাজার ১৫৬টি। গত দিনের তুলনায় এক ধাক্কায় ১১ হাজার বেড়েছে নমুনা পরীক্ষা।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

রাজ্যে এদিন মোট রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ লক্ষ ৩৯ হাজার ৯৯৬ জনে। যার মধ্যে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ২৪৮ জনে।

নভেম্বরে করোনায় দৈনিক মৃত্যু ঘোরাফেরা করেছে মূলত ৫০-এর ঘরে। ডিসেম্বরের শুরুতেও সেই ধারাই বজায় ছিল। কিন্তু এখন তা ৪০-এর ঘরেই ওঠানামা করছিল। গত একদিনে ৪০-এরও নিচে নেমেছে মৃত্যু। ৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে গত একদিনে। আগের দিনের চেয়ে ৩ জন কম মানুষের প্রাণ গেছে করোনায়।

এদিনের মৃতের সংখ্যার হাত ধরে রাজ্যে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯ হাজার ৪৩৯ জন। গত একদিনে যে ৩৮ জন প্রাণ হারিয়েছেন তাঁদের মধ্যে কলকাতায় প্রাণ হারিয়েছেন ১০ জন। উত্তর ২৪ পরগনায় মারা গেছেন ৬ জন।

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনা বাদ দিলে হাওড়ায় ৫ জন, নদিয়ায় ৪ জন, দক্ষিণ দিনাজপুরে ২ জন, বীরভূমে ২ জন, পশ্চিম মেদিনীপুরে ২ জন এবং পশ্চিম বর্ধমানে ২ জনের প্রাণ গেছে করোনায়। এছাড়া কোচবিহার, দার্জিলিং, মুর্শিদাবাদ, হুগলি এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১ জন করে মানুষের প্রাণ গেছে করোনায়।

রাজ্যে একই সঙ্গে বহু রোগী সুস্থ হয়ে ফিরছেন। গত একদিনে অবশ্য সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা গত দিনের চেয়ে সামান্য কমেছে। ২ হাজার ২৭০ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন।

এদিন রাজ্যে করোনামুক্ত মানুষের মোট সংখ্যাটা দাঁড়িয়েছে ৫ লক্ষ ১৪ হাজার ৩০৯ জন। এদিন এত মানুষ সুস্থ হয়ে ওঠায় রাজ্যে সুস্থতার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৫.২৪ শতাংশ। — রাজ্যসরকারের স্বাস্থ্য দফতরের দৈনিক বুলেটিন-এর সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *