Health

অনন্য আবিষ্কার, ওমিক্রনে আক্রান্ত কিনা জানতে লাগবে মাত্র ২ ঘণ্টা

করোনা সংক্রমিত কিনা তা জানতে বেশি সময় এখন লাগছে না। তবে করোনা আক্রান্ত রোগীর স্ট্রেন ওমিক্রন কিনা তা জানতে সময় লাগছে। তা আর লাগবেনা।

করোনা হয়েছে কিনা তা জানার জন্য পরীক্ষাগুলি এখন অনেকটাই জলভাত হয়ে গেছে। কিন্তু সেই করোনা সংক্রমিত রোগী ওমিক্রনে আক্রান্ত কিনা তা জানতে দীর্ঘ সময় লেগে যাচ্ছে। ওমিক্রন কিনা জানতে কমপক্ষে ৩৬ ঘণ্টা লাগছে। আর পুরো জিনোম সিকোয়েন্সিং জানতে লেগে যাচ্ছে ৪ থেকে ৫ দিন।

করোনা সংক্রমিত ব্যক্তি ওমিক্রন স্ট্রেনে আক্রান্ত কিনা তা জানতেই এতটা সময় লেগে যাওয়াটা সমস্যার কারণ হচ্ছিল। এবার সেই সমস্যা থেকে মুক্তি মিলবে।

আইসিএমআর-এর রিজিওনাল মেডিক্যাল রিসার্চ সেন্টারের বিজ্ঞানীরা কোনও ব্যক্তি ওমিক্রন স্ট্রেনে আক্রান্ত কিনা জানার জন্য একটি বিশেষ পদ্ধতি আবিষ্কার করেছেন।

ডিব্রুগড়ের ল্যাবে হাইড্রোলিসিস পরীক্ষা ভিত্তিক একটি রিয়েল টাইম আরটি-পিসিআর পরীক্ষার বন্দোবস্ত তাঁরা করেছেন। যাতে নমুনা সংগ্রহের ২ ঘণ্টার মধ্যে বলে দেওয়া যাবে রোগী ওমিক্রনে আক্রান্ত কিনা।

এতে দ্রুত তাঁকে আলাদা করে চিকিৎসা শুরুর কাজও তরান্বিত হবে। যে ওমিক্রন সংক্রমণ জানতেই এখন ৩ থেকে ৪ দিন লেগে যাচ্ছে, সেখানে মাত্র ২ ঘণ্টায় ওমিক্রন কিনা জানার পদ্ধতি আবিষ্কার শুধু ভারতবাসীর জন্যই নয়, বিশ্বের জন্যও এক অতিপ্রয়োজনীয় আবিষ্কার। যা ভারত বিদেশকেও দিতে পারে।

পশ্চিমবঙ্গের জিসিসি বায়োটেক নামে একটি পিপিপি মডেলের সংস্থা এই কিট তৈরি করবে। তারপরই তা দিয়ে পরীক্ষা শুরু হয়ে যাবে। প্রসঙ্গত ভারতে এখনও পর্যন্ত ৩৩ জনের দেহে ওমিক্রন পাওয়া গিয়েছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button