World

করোনা প্রতিষেধক টিকাকরণে ছাড় নয় চিড়িয়াখানার জীবজন্তুদেরও

চিড়িয়াখানার জীবজন্তুদের করোনা প্রতিষেধক টিকা প্রদানে গতি আনার লড়াই শুরু হয়েছে। কারণও রয়েছে। কোনওভাবেই করোনাকে জীব জগতে বাড়তে দেওয়া রুখতে এই উদ্যোগ।

করোনা ছড়াল কোথা থেকে? এ প্রশ্নের সঠিক উত্তর এখনও পরিস্কার নয়। তবে বিজ্ঞানীদের একাংশের দাবি, বাদুড় থেকেই ছড়িয়েছে করোনা। ফলে করোনা ছড়ানোর পিছনে একটি জীবকেই দায়ী করা হচ্ছে।

এদিকে করোনার প্রথম ও দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভারত সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে জন্তুদের মধ্যে করোনা ছড়াতে দেখা গেছে। সে তালিকায় বাঘ, সিংহ সবই রয়েছে। এবার তাই করোনা প্রতিষেধক টিকাকরণ মানুষের পাশাপাশি জীবজন্তুদের মধ্যেও জোর কদমে চালু করা হল।

নিউ ইয়র্কের ফিনিক্স চিড়িয়াখানায় জীবজন্তুদের করোনা প্রতিষেধক টিকা প্রদান শুরু হয়েছে। সুমাত্রান টাইগার, জাগুয়ার, আফ্রিকান লায়ন, বোর্নিয়ান ওরাংওটাং, টাইনি এম্পেরর টামারিন, ইজিপশিয়ান ফ্রুট ব্যাট, আর্মাডিলো এবং টু টোড স্লথদের করোনা প্রতিষেধক টিকার প্রথম ডোজ প্রদান করা হয়েছে।

অবশ্যই মানুষকে যে টিকা প্রদান করা হচ্ছে তা জীবজন্তুদের দেওয়া হচ্ছেনা। তাদের জন্য আলাদা টিকা তৈরি করা হয়েছে। তৈরি করেছে আমেরিকার জোয়েটিস নামে একটি সংস্থা। এই সংস্থা জীবজন্তুদের ওষুধ তৈরি করে।

চলতি বছরের শুরুর দিকে এই সংস্থা মার্কিন কৃষি দফতর থেকে ছাড়পত্র পায়। তারা এই টিকার প্রথম ট্রায়াল করে সান দিয়েগো চিড়িয়াখানার সাফারিতে।

সেখানে ওয়েস্টার্ন লোল্যান্ড গোরিলাদের ওপর ট্রায়াল করা হয়। যে ফিনিক্স চিড়িয়াখানায় করোনা প্রতিষেধক টিকার প্রথম ডোজ প্রদান করা হল সেই চিড়িয়াখানায় অবশ্য আজ পর্যন্ত কোনও প্রাণির দেহে করোনা ধরা পড়েনি।

এদিকে চিড়িয়াখানা বা অভয়ারণ্যের প্রাণিদের মধ্যে করোনা প্রতিষেধক টিকা যে এবার আরও গতি পাবে তা বলাই বাহুল্য। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.