Health

করোনা মোকাবিলায় বড় ভরসা হতে পারে ঘোড়া

টিকা ছাড়াও করোনাকে কীভাবে মোকাবিলা করা যায় তার খোঁজ চালাচ্ছে গোটা বিশ্ব। আর সেখানেই এক গবেষণা জানাচ্ছে এক্ষেত্রে বড় ভরসা হতে পারে ঘোড়া।

ঘোড়ার প্রতি ভরসা ও নির্ভরশীলতা আরও বাড়তে পারে মনুষ্যজাতির। কারণ ঘোড়া ও মানুষের মাঝে এসে পড়েছে করোনা।

যেখানে মানবসভ্যতার ওপর কালো ছায়া ফেলেছে করোনা। এখনও যেখানে গোটা বিশ্ব করোনার কোপে পড়ে চলেছে। সেখানে করোনাকে রুখে দিতে পারে ঘোড়া। অন্তত এমনই মনে করছেন ব্রাজিলের ফেডারেল ইউনিভার্সিটি অফ রিও ডি জেনিরো-র গবেষকেরা।

শুনতে একটু অবাক হওয়ার মত হলেও ঘোড়া সত্যিই আগামী দিনে করোনা মোকাবিলায় বড় ভরসার নাম হতে পারে। কেন এমন বলছেন গবেষকেরা?

গবেষকেরা পরীক্ষা করে দেখেছেন যে ঘোড়ার দেহে থাকা অ্যান্টিবডি মানবদেহে করোনা মোকাবিলায় সক্ষম। আর শুধু সক্ষমই নয়, রীতিমত ভাল ফল করছে এই অ্যান্টিবডি।

ঘোড়ার সেরাম থেকে এই অ্যান্টিবডি সংগ্রহ করে তা করোনা প্রতিরোধে কাজে লাগানো সহজ হবে বলেও মনে করছেন বিশেষজ্ঞেরা। সারা বিশ্বেই এই কাজ করা যাতে পারে। কারণ সারা বিশ্বে ঘোড়ার অভাব নেই। এমনকি এই অ্যান্টিবডি করোনা হওয়া পশুদের দ্রুত ওজন কমা থেকে বাঁচাতে সক্ষম বলে জানিয়েছেন গবেষকেরা।

ভারতের একটি সংস্থা আইসেরা বায়োলজিক্যাল একই রাস্তায় হেঁটে ঘোড়ার অ্যান্টিবডি ব্যবহার করছে তাদের একটি করোনা প্রতিরোধক ওষুধ তৈরি করতে।

সংস্থার দাবি এই ওষুধ মাত্র ৯০ ঘণ্টায় সারিয়ে দিতে পারে করোনা।‌ কোলাপুরের এই সংস্থা তাদের ফেজ ওয়ান ট্রায়ালে রয়েছে।‌ তবে তারা ঘোড়ার অ্যান্টিবডিকেই কাজে লাগাচ্ছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button