Health

করোনা বিদায় নিয়ে আশার কথা শোনালেন না বিশেষজ্ঞেরা

করোনা কবে বিদায় নেবে এ প্রশ্ন সকলের? কবে ফিরে পাওয়া যাবে আগের মত স্বাভাবিক জীবন? যদিও বিশেষজ্ঞেরা খুব একটা আশার কথা শোনালেন না।

লন্ডন : আর কতদিন এই নিউ নর্মাল জীবনে থাকতে হবে? কবে ফিরে পাওয়া যাবে করোনা পূর্ব স্বাভাবিক জীবন? এ প্রশ্ন বিশ্বের প্রায় সকলের।

করোনা থেকে মুক্তি দিতে এখন এক এক করে হাজির হচ্ছে নানা করোনা প্রতিষেধক টিকা। কিন্তু তাও নিতে রাজি হচ্ছেন না অনেকে। পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ভয় পাচ্ছেন তাঁরা।

তবে টিকা প্রদান শুরুও হয়ে গেছে। তাহলে কী টিকা প্রদানই শেষ করবে করোনাকে? মানুষ ফিরবেন স্বাভাবিক জীবনে। খোদ করোনা প্রতিষেধক টিকা প্রস্তুতকারক সংস্থার বিশেষজ্ঞই এ বিষয়ে নিশ্চিত নন। বরং তাঁর দাবি কিছুটা চমকে দিয়েছে বিশ্বকে।

ফাইজারের সহায়তায় টিকা তৈরি করা বায়োএনটেক সংস্থার বিশেষজ্ঞ-সিইও উগার সাহিন জানাচ্ছেন, ১০ বছর করোনা এই পৃথিবীতে থেকে যাবে।

মানুষের স্বাভাবিক জীবনে প্রভাবও ফেলবে। তাই তৈরি হতে হবে নতুন স্বাভাবিকের সঙ্গে। সেটাকেই স্বাভাবিক জীবন করে নিতে হবে।

টিকা সম্বন্ধে বলতে গিয়ে সাহিন বলেন, তাঁদের টিকা ৪৫টি দেশে ইতিমধ্যেই স্বীকৃতি পেয়েছে। ব্রিটেনে যে ধরণ বদলানো করোনার খোঁজ মিলেছে সেটির টিকাও তাঁরা ৬ সপ্তাহের মধ্যে তৈরি করে ফেলতে সক্ষম বলে জানান সাহিন।

প্রসঙ্গত ব্রিটেনে করোনার নতুন স্ট্রেন ফের আতঙ্ক ছড়াচ্ছে। ইতিমধ্যেই সেই নয়া ধরনের করোনা ফ্রান্স, অস্ট্রেলিয়া ও নাইজেরিয়ায় পৌঁছে গেছে।

ভারত এখন ব্রিটেন থেকে সব বিমান ওঠানামায় নিষেধাজ্ঞা জারি করলেও গত সপ্তাহে ব্রিটেন থেকে অনেকে এ দেশে প্রবেশ করেছেন। যাঁদের বেশ কয়েকজন করোনা পজিটিভ। তাঁদের দেহে নতুন স্ট্রেনটিই রয়েছে কিনা তার খোঁজ শুরু হয়েছে।

এদিকে এপ্রিলের শেষে ব্রিটেনে যে মৃত্যুর হার পৌঁছে গিয়েছিল, এতদিন পর সেখানেই পৌঁছেছে গত সপ্তাহে। নতুন স্ট্রেনটি এতটাই ভয়ংকর হয়ে উঠেছে সেখানে। যার সংক্রমণ ক্ষমতা ৭০ শতাংশ বেশি বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞেরা।

ব্রিটেনে এখন নতুন করে কঠিন করোনা বিধি চালু হয়েছে। নতুন করে লকডাউনের পরিস্থিতির মুখে পড়েছেন ব্রিটেনের বাসিন্দারা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button