World

শ্যাম্পেনের জল থেকে উঠে এল এক কমলা দানব

তুলে ধরে রাখতে গেলে রীতিমত এক শক্তিশালী মানুষ হতে হবে। তাও বেশি সময় সম্ভব নয়। শ্যাম্পেনের জলে এমনই এক কমলা দানব অনেকের কাছেই অবিশ্বাস্য।


এতদিন ধরে শ্যাম্পেনের জলে ডুবে ছিল এই কমলা দানব! নিজের চোখকে বিশ্বাসই করতে পারছেন না অনেকে। তবে তাকে জল থেকে তুলে হাতে নেওয়ার পর বহু মানুষ ভিড় করেন তাকে দেখার জন্য।


অ্যাকোয়ারিয়াম যাঁদের আছে তাঁদের কাছে এ মাছ অতি পরিচিত। শখ করে তাঁরা বেশ কয়েকটি ছেড়ে রেখে দেন জলে। তার কমলা, সোনালি রং অবশ্যই দৃষ্টিনন্দন।


তাই অ্যাকোয়ারিয়ামে এর দেখা অধিকাংশ সময়ই পাওয়া যায়। কিন্তু তার যে এমন অতিকায় চেহারা হতে পারে তা কেউ ভাবতেও পারেননি।

মাছটি ছিপে গাঁথার পর তা দেখা না গেলেও জল তোলপাড় করছিল। ফলে যিনি ছিপে গাঁথেন মাছটিকে, তাঁর প্রায় আধঘণ্টা লেগে যায় মাছটিকে ডাঙায় তুলতে। আর তোলার পর তিনি নিজেই কার্যত হকচকিয়ে যান।


এত বিশাল গোল্ড ফিশ! এ তিনিও কখনও দেখেননি। ওজন করে দেখা যায় স্ত্রী গোল্ড ফিশটির ওজন প্রায় ৩০ কেজি! বয়স প্রায় ২০ বছর।


খতিয়ান বলছে এর আগে বিশ্বের কোথাও এতবড় গোল্ড ফিশ দেখা যায়নি। যা পাওয়া গেল ফ্রান্সের শ্যাম্পেন শহরের ব্লুওয়াটার হ্রদে। যেখানে মধ্যবয়সী ব্রিটিশ অ্যান্ডি হ্যাকেট মাছটিকে ছিপে গাঁথেন।


আমেরিকায় বড় চেহারার গোল্ড ফিশ পাওয়া যায় ঠিকই, তবে আমেরিকানরাও এতবড় গোল্ড ফিশ কখনও দেখেননি। অতিকায় মাছটি পাকড়াও করার পর অ্যান্ডি এখন রাতারাতি সেলেব্রিটি। তাঁকে সবচেয়ে বড় গোল্ড ফিশ ধরার জন্য পুরস্কৃতও করা হয়েছে।


Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *