National

সেনা ব্যান্ড আর মন্ত্রোচ্চারণের সঙ্গে ৬ মাসের জন্য খুলল বদ্রীনাথ মন্দিরের দরজা

রবিবার সকালে যাবতীয় রীতি মেনেই খুলে গেল বদ্রীনাথ মন্দিরের দরজা। এদিন অপরূপ ফুলের সাজে সেজেছিল বদ্রীনাথ মন্দির। চারধারে চলছিল মন্ত্রোচ্চারণ।

গত শনিবারই ডোলিতে যোশীমঠ থেকে বদ্রীনাথ মন্দিরে এসে পৌঁছয় বিগ্রহ। রবিবার সকালে প্রাচীন রীতি নীতি মেনে খোলা হল বদ্রীনাথ মন্দিরের দরজা।

এদিন মন্দিরের সামনে ছিল পুরোহিত সহ ভক্তদের ঢল। ভক্তদের গলায় ছিল ঈশ্বরের জয়ধ্বনি আর মন্ত্রোচ্চারণ। সেইসঙ্গে দরজা আস্তে আস্তে খুলে যায়। বাজতে থাকে সেনার ব্যান্ড।

সেই ব্যান্ডের শব্দ আর মন্ত্রোচ্চারণ মিলেমিশে একাকার হয়ে গোটা চত্বরের পরিবেশই অনন্য করে তুলেছিল। শীতের ৬ মাস বন্ধ থাকার পর রবিবার থেকেই খুলল চারধাম অন্যতম বদ্রীনাথের দরজা। ভগবান বিষ্ণুকে চোখের দেখা দেখতে মন্দিরে ভিড় জমান বহু ভক্ত। প্রথম দিনেই যথেষ্ট ভক্তের ঢল নামে।

উত্তরাখণ্ডের চামোলি জেলার গাড়োয়াল পাহাড়ের ধারে অলকানন্দা নদীর পারে এই অপরূপ মন্দির এদিন সেজেছিল মূলত গাঁদা ফুলের সাজে। হলুদ আর কমলা গাঁদায় মন্দির গাত্র ঢেকে গিয়েছিল। এছাড়াও সাজানোর জন্য ব্যবহার হয় রঙিন নানা ফুল।

এখনও বদ্রীনাথে কনকনে ঠান্ডা। বদ্রীনাথ মন্দিরের সামনে দাঁড়ালে আশপাশের পাহাড়গুলি এখনও বরফের চাদরে মোড়া।

এখন থেকে আগামী ৬ মাস খোলা থাকবে এই মন্দির। আগামী ৪৫ দিনের জন্য দৈনিক ১৫ হাজার করে ভক্ত এই মন্দিরে আসতে পারবেন।

ভোর ৬টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মন্দির খোলা থাকবে। এছাড়া কেদারনাথ মন্দিরও খুলে গেছে ভক্তদের জন্য। তবে সেখানে দৈনিক ১২ হাজার ভক্ত হাজির হতে পারবেন। — তথ্য ও চিত্র – কামাখ্যাপ্রসাদ লাহা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.