State

একই পরিবারের ৩ জনের আগুনে পুড়ে মৃত্যু

অগ্নিদগ্ধ হয়ে কয়েকঘণ্টার ব্যবধানে মৃত্যু হল স্বামী স্ত্রী ও সন্তানের। একই পরিবারের ৩ জনের রহস্যমৃত্যুতে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়াল উত্তর ২৪ পরগনার দত্তপুকুর এলাকায়। গত রবিবার রাতে দত্তপুকুর থানার সদরপুর এলাকায় ঘরের ভিতর ছিলেন কুশ ঘোষ। পেশায় তিনি বাস চালক। তাঁর স্ত্রী কাজল ঘোষ ও আড়াই বছরের মেয়ে সায়ন্তিকা সেইসময় ঘরেই ছিল। মৃতের দাদার দাবি, আচমকাই চিৎকারের শব্দ শুনে ভাইয়ের ঘরের সামনে তিনি ছুটে আসেন। দেখেন, ভাইয়ের ঘরে দাউদাউ করে আগুন জ্বলছে। ভিতরে চিৎকার করছে ৩ জন। ঘরের দরজা ভিতর থেকে বন্ধ। তাই ঘরের দরজা ভেঙে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন তিনি। তাঁর দাবি, ভাই, ভাইবউ ও ভাইঝিকে বাঁচাতে গিয়ে আগুনে পুড়ে চোট পান তিনি।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় অগ্নিদগ্ধ ৩ জনকে ভর্তি করা হয় হাসপাতালে। রাতে সেখানেই মৃত্যু হয় কাজল ঘোষ নামে ওই গৃহবধূর। অবস্থার অবনতি হওয়ায় মৃতার স্বামী ও সন্তানকে ভর্তি করা হয় কলকাতা আর জি কর হাসপাতালে। সেখানে সোমবার সকালে মারা যান ২ জনেই। মেয়ে, জামাই ও নাতনির আগুনে পুড়ে মৃত্যুর পিছনে মেয়ের ভাশুর ও শাশুড়ির হাত আছে বলে দাবি করেছেন কাজল ঘোষের পরিজনেরা। এই মর্মে দত্তপুকুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে মৃতার পরিবার। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button