State

হাসপাতালের জলের পাইপে রোগীর ঝুলন্ত নগ্ন দেহ, ঘনীভূত রহস্য

হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন সুস্থ হতে। চিকিৎসা ভালো করে শুরু হওয়ার আগেই নিখোঁজ হয়ে গেলেন রোগী। পরে সেই হাসপাতাল থেকেই উদ্ধার হল মৃত রোগীর নগ্ন দেহ। উচ্চপদস্থ সরকারি কর্মচারির এমন রহস্য মৃত্যুতে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়াল মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ চত্বরে।

মৃত রোগী সমরেশ হাজরা ডব্লিউবিসিএস আধিকারিক। গত বছর ৬ ডিসেম্বর নবান্নে চাকরিতে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। প্রশিক্ষণের জন্য শালবনিতে গিয়ে সেখানেই হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন সমরেশবাবু। গত ১৮ জানুয়ারি সহকর্মীরা মিলে তাঁকে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করান। গত সোমবার আচমকা নিজের কেবিন থেকে নিখোঁজ হয়ে যান অসুস্থ সমরেশবাবু। মঙ্গলবার সকালে হাসপাতালের চারতলায় রোগীর নিথর দেহ চোখে পড়ে হাসপাতালের কর্মীদের। জলের পাইপে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় সমরেশবাবুর বিবস্ত্র দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের গাফিলতি এবং খুনের ষড়যন্ত্রের অভিযোগে ঘটনার সিআইডি তদন্ত চেয়ে সরব হয়েছেন মৃতের পরিবার। হাসপাতালের ভিতরে রোগীর এমন অস্বাভাবিক মৃত্যু কিভাবে হল জানতে তদন্তে নেমেছে পুলিশ।


আকর্ষণীয় খবর পড়তে ডাউনলোড করুন নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *