State

প্রেমিক যুগলের আত্মহত্যার চেষ্টা, ভয়ে আত্মঘাতী বান্ধবী

এক কিশোরীর বিষ খেয়ে আত্মহত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল পুরুলিয়ার আমুরিয়া গ্রামে। পরিবারের দাবি, তার বান্ধবী ও বান্ধবীর প্রেমিকের বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টায় আতঙ্কিত হয়েই কিশোরীটি বিষ খায়। পরে হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। যদিও যাদের বিষ খাওয়া দেখে ওই কিশোরী ভয়ে এমন পদক্ষেপ করল সেই প্রেমিক যুগল মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা কষছে।

মৃত কিশোরীর পরিবার সূত্রের খবর, বাড়ি থেকে প্রেমের সম্পর্ক মেনে নেবে না, এই আশঙ্কায় বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে প্রেমিক যুগল। সেখানে তখন উপস্থিত ছিল ওই কিশোরী। বিষের সংক্রমণে ২ জনকে ছটফট করতে দেখে ভয়ে দিশাহারা হয়ে অবশিষ্ট বিষ গলায় ঢেলে দেয় সে। স্থানীয় সূত্র থেকে জানা গেছে, কুলটির আলুটিয়া গ্রামের বাসিন্দা দুই কিশোরী একে অপরের ঘনিষ্ঠ বান্ধবী। তাদের মধ্যে একজনের সঙ্গে পুরুলিয়ার আমুরিয়া গ্রামের বাসিন্দা সম্পর্কে ওই কিশোরীর মামার সঙ্গে একটা প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত বুধবার প্রেমিকের সঙ্গে তার গ্রামে বান্ধবীকে নিয়ে প্রেমিকা কিশোরীটি দেখা করতে যায়। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান পরিবারের অমতে তাদের ভালবাসা পরিণতি পাবে না বুঝে বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে কিশোরী ও তার প্রেমিক।

চোখের সামনে বান্ধবী ও তার প্রেমিককে বিষ খেতে দেখে সম্ভবত ভয় পেয়ে অপর কিশোরীও বিষ খেয়ে নেয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় আসানসোল জেলা হাসপাতালে ৩ জনকে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার মারা যায় বান্ধবীটি। বাকি দু’জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। মৃত কিশোরীর বিষ খাওয়ার কারণ নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। সঠিক কী ঘটেছিল, কেনই বা ৩ জন বিষ খেল তা জানতে ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button