State

রাজ্য জুড়ে একের পর এক দুর্ঘটনা, মৃত্যু

সকাল সাড়ে ৭টা। হুগলির ডানকুনিতে একটি বেপরোয়া ডাম্পারের ধাক্কায় মৃত্যু হয় ২ বাইক আরোহীর। ২ নং জাতীয় সড়কের ওপর ডাম্পারটির সঙ্গে বাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। ঘটনাস্থলেই ২ বাইক আরোহীর মৃত্যু হয়। ডাম্পারের চালককে গ্রেফতার করে পুলিশ।

হাওড়ার বাগনানে অপর একটি দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ২ জনের। রবিবার গভীর রাতে চন্দ্রপুরের কাছে জাতীয় সড়কের ওপর বালিবোঝাই একটি লরি ধাক্কা মারে একটি যাত্রী বোঝাই অটোকে। তারপর টাল সামলাতে না পেরে লরিটি উল্টে যায় অটোর ওপর। ঘটনাস্থলেই অটো চালকের মৃত্যু হয়। হাসপাতালে মৃত্যু হয় আরও এক আরোহীর।

উত্তর দিনাজপুরের করণদিঘিতে বিহারগামী একটি গাড়ির সঙ্গে একটি লরির মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার ভোরে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের ওপর হওয়া এই দুর্ঘটনায় গাড়ির সামনের অংশ দুমড়ে মুচড়ে যায়। মৃত্যু হয় ২ আরোহীর। তবে এখনও মৃতদের পরিচয় জানা যায়নি। ঘাতক লরিটি আটক করেছে পুলিশ। চালক পালিয়েছে।

মুর্শিদাবাদের দৌলতাবাদের কাছে গত রবিবার গভীর রাতে এক মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে। একটি বাইকে ৩ যুবক আসছিলেন। সেই সময় রাতের অন্ধকারে ঠাওর করতে না পেরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাইকটি রাস্তার ধারে একটি গাছে ধাক্কা মারে। ঘটনাস্থলেই ২ আরোহীর মৃত্যু হয়। এক যুবক আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি।

উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁয় একটি মাটাডোর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে এদিন ২টি টোটোতে ধাক্কা মারে। টোটোর আরোহীরা আহত হন। এরপর ওই মাটাডোরের চালককে গাড়ি থেকে নামিয়ে বেধড়ক মারধর শুরু করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। মারের চোটে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ওই ব্যক্তির।

অন্যদিকে পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতায় সোমবার ভোরে ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কের ওপর মালবোঝাই একটি লরি উল্টে যায়। এতে আহত হন লরির চালক ও খালাসি।

শরতের প্রায় শেষ। কিন্তু এখনও বর্ষা বিদায় হয়নি। বিলম্বিত হচ্ছে বর্ষা বিদায়ের সময়কাল। এদিকে আবার বিভিন্ন জেলায় এখন সকালের দিকে কুয়াশার চাদর আশপাশের মুখ ঢাকছে। এই অবস্থায় দুর্ঘটনার সম্ভাবনা বাড়ছে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button