State

শিক্ষকের বাড়িতে চুরি করে তাঁকে প্রণাম করে হাতখরচা দিয়ে পালাল ২ চোর

বাড়িতে ঢুকে লুঠপাট চালাল ২ চোর। যাঁর বাড়িতে চুরি করল তারা, যাওয়ার সময় তাঁর পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করে পালাল ২ চোর।

প্রাক্তন ছাত্রদের হাতেই সর্বস্বান্ত হলেন এক মাস্টারমশাই। তবে চোররা মাস্টারমশাইয়ের প্রতি সামান্য সম্মানটুকু প্রদর্শন করে গেল। যা দেখে স্বয়ং মাস্টারমশাইও অবাক হয়ে যান। ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের ফারাক্কায়।

গত সোমবার রাতে ফারাক্কা ব্যারেজ হাইস্কুলের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক হরিশ্চন্দ্র রায় তাঁর ভাইয়ের সঙ্গে বসে কথা বলছিলেন। সেই সময় আচমকাই ২ চোর বাড়িতে ঢুকে পড়ে। তাদের হাতে ধারাল অস্ত্র ছিল। তা দেখিয়ে তারা হরিশ্চন্দ্রবাবুর ভাইকে বেঁধে ফেলে। তারপর বাড়িতে শুরু হয় তাণ্ডব, লুঠপাট।

চুরি পর্ব শেষ করে ভয়ে তটস্থ বৃদ্ধ শিক্ষক হরিশ্চন্দ্রবাবুর পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করে ২ চোর। হরিশ্চন্দ্রবাবু চিনতে না পারলেও তারা তাদের স্কুলের প্রধান শিক্ষককে চিনতে ভুল করেনি। তাই স্যারের বাড়িতে চুরি করলেও স্যারকে প্রণাম করতে ভোলেনি।

চোররা পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করছে। নিজেদের তাঁর প্রাক্তন ছাত্র হিসাবে পরিচয় দিচ্ছে দেখে কিছুটা ভয় কাটে হরিশ্চন্দ্রবাবুর। অভয় পেয়ে তিনি চোরদের জানান, যদি তারা বাজার করার জন্য কিছু টাকা অন্তত দিয়ে যায়।

চোরেরা নিরাশ করেনি স্যারকে। চুরি করা নগদ থেকে ২০০ টাকা দিয়ে যায় তারা। সেইসঙ্গে যে ২টি মোবাইল চুরি করেছিল তার একটিও ফেরত দিয়ে দেয়। তারপর চম্পট দেয় সেখান থেকে।

এই ঘটনা যেখানে ঘটেছে সেখান থেকে কার্যত ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে থানা। তারপরেও এভাবে এক গৃহস্থের বাড়ি ফাঁকা করে চুরি হল কীভাবে, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button