State

বৌদির ২ বছরের প্রেমের পর প্রত্যাখ্যান, মানতে না পেরে কাণ্ড ঘটালেন যুবক

পাড়ারই এক বৌদির সঙ্গে ক্রমশ সম্পর্ক তৈরি হয়েছিল তাঁর। প্রেমের সম্পর্ক গভীরও হয়েছিল। কিন্তু সেই সম্পর্ক আচমকা প্রত্যাখ্যান মেনে নিতে না পেরে কাণ্ড ঘটালেন যুবক।

রবিবার বেলা তখন প্রায় ১১টা। নদিয়ার শান্তিপুর কালনা ঘাটে গঙ্গা পারাপারের একটি ভেসেলে চাপেন এক যুবক। অন্যদের সঙ্গে তিনিও যাত্রী হিসাবেই ভেসেলে ওঠেন। সেই ভেসেল তখন মাঝ গঙ্গায়।

এই সময় সকলকে অবাক করে মাঝ গঙ্গায় ঝাঁপ দেন প্রতীক ধর নামে ওই যুবক। আচমকা এভাবে এক যুবককে আত্মহননের চেষ্টা করতে দেখে আর স্থির থাকতে পারেননি মাঝিরা। আশপাশের মাঝিরাও গঙ্গায় ঝাঁপ দেন।

মাঝিরাই ওই যুবককে ডোবার হাত থেকে রক্ষা করে পারে তুলে আনেন। মাঝ গঙ্গা থেকে ওই যুবককে ধারে টেনে আনা সহজ কথা ছিলনা। সেখানে সিভিক পুলিশরা ওই যুবককে সুস্থ করে তোলেন।

মৃত্যুর মুখ থেকে বেঁচে ফেরা সুলতানপুরের বাসিন্দা ওই যুবক এরপর সব কথা খুলে বলেন। তাঁর দাবি, তিনি তাঁর পাড়ারই এক বৌদির প্রেমে পড়েন।

গত ২ বছর ধরে তাঁদের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। কিন্তু আচমকাই ওই মহিলা যুবকের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের কথা অস্বীকার করেছেন। তাঁদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্কের কথা অস্বীকার করেছেন।

এই প্রত্যাখ্যান মেনে নিতে পারেননি ওই যুবক। তাঁর দাবি তিনি ওই বৌদিকে খুবই ভালবেসে ফেলেছিলেন। তাই তাঁদের প্রেমের সম্পর্ক প্রত্যাখ্যান করায় অবসাদ পেয়ে বসেছিল তাঁকে।

শেষপর্যন্ত তিনি নিজেকে শেষ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে গঙ্গায় ঝাঁপ দেন। তবে এ যাত্রায় মাঝিদের তৎপরতায় বেঁচে গেলেন তিনি।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.