State

নেতাজি মূর্তিতে মাল্যদান ঘিরে চরমে অশান্তি

নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন জায়গায় অনুষ্ঠান হচ্ছে। ভাটপাড়ায় মাল্যদান ঘিরে এদিন কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় গোটা চত্বর।

রবিবার নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ভাটপাড়ার বিধায়ক সাংসদ অর্জুন সিংয়ের ছেলে পবন সিং স্থানীয় নেতাজি মূর্তিতে মাল্যদান করতে যান। অভিযোগ সে সময় তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের সঙ্গে বিজেপি কর্মীদের বচসা শুরু হয়। বচসা ক্রমে উত্তপ্ত হতে থাকে। শুরু হয় হাতাহাতি।

এদিকে এই ঘটনার কথা কানে যেতেই সেখানে হাজির হন ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং। অর্জুন সিংকে দেখে উত্তেজনা আরও চরমে ওঠে। তাঁকে লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি শুরু হয়। অর্জুন সিংয়ের নিরাপত্তারক্ষীরা তাঁকে ঘিরে ফেলেন।

এরমধ্যেই অর্জুন সিংকে তেড়ে যেতে দেখা যায়। তাঁর সঙ্গে কয়েক জনের ধস্তাধস্তিও হয়। কথা কাটাকাটি চলতে থাকে। অশ্রাব্য ভাষাও শোনা যায়। মাঝে দাঁড়িয়ে থেকে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করতে থাকে পুলিশ।

এসময় গুলিও চলে। তৃণমূলের দাবি, অর্জুন সিংয়ের ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষীই গুলি চালিয়েছেন। অর্জুন সিংয়ের পাশে এক কালো পোশাক পরিহিত ব্যক্তিকে পিস্তল হাতেও দেখা যায়।

বিজেপির দাবি তৃণমূলই গুলি চালিয়েছে। পাল্টা তৃণমূলের দাবি, অর্জুন সিংয়ের নিরাপত্তারক্ষীই গুলি চালিয়েছে। ২ পক্ষে অশান্তি চরমে পৌঁছয়। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

নেতাজির মূর্তিতে মাল্যদান ঘিরে ভাটপাড়ায় এদিনের অশান্তি কিছুক্ষণ পর থামলেও সারাদিনই চাপা উত্তেজনা ছিল এলাকায়। প্রচুর পুলিশ মোতায়েন ছিল। বিজেপি ও তৃণমূল সমর্থকেরা একে অপরের দিকে অশান্তি পাকানোর জন্য আঙুল তুলেছে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.