State

জিনপিং-এর কুশপুতুল দাহ, চিনা দ্রব্য বর্জনের ডাক

চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-এর কুশপুতুল দাহ করলেন শয়ে শয়ে মানুষ। চিনা দ্রব্য বর্জনের ডাক।

কলকাতা : লাদাখে চিনা আগ্রাসন ও চিন সেনার আক্রমণে ভারতীয় সেনার মৃত্যু নিয়ে ক্ষুব্ধ গোটা দেশ। চিনকে এর যোগ্য জবাব দেওয়ার দাবি জানাচ্ছেন দেশবাসী। ভারতীয় জওয়ানদের রক্ত যেন বিফলে না যায় সেকথা বারবার বলছেন মানুষ। এই অবস্থায় বুধবার উত্তরবঙ্গের শয়ে শয়ে মানুষ রাস্তায় বার হয়ে প্রতিবাদে মুখর হলেন। কোচবিহার জেলার বিভিন্ন অংশ ও শিলিগুড়িতে একাধিক চিন বিরোধী মিছিল বার হয়। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের তরফেও মিছিল বার করা হয়।

মিছিল থেকে চিনা দ্রব্য বর্জনের ডাক ওঠে। চিনা দ্রব্য বর্জনের দাবিতে সোচ্চার হন সকলে। সেইসঙ্গে মিছিলে চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-এর কুশপুতুল দাহ করা হয়। মিছিল থেকে চিন বিরোধী স্লোগান ওঠে। ভারতের বিভিন্ন প্রান্তেই চিন বিরোধী বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। বুধবার বাংলা সেই আন্দোলনের অন্যতম পুরোধা হল। প্রসঙ্গত চিনা আক্রমণে বাংলার ২ সন্তানেরও মৃত্যু হয়েছে। বীরভূমের মহম্মদ বাজারের রাজেশ ওঁরাও এবং কোচবিহারের বিপুল রায় চিনা হামলায় শহিদ হয়েছেন।

কংগ্রেস সাংসদ অধীররঞ্জন চৌধুরী জওয়ানদের মৃত্যুর ন্যায় বিচার চেয়েছেন। অধীরবাবু সাফ জানিয়েছেন, জওয়ানদের মৃত্যুতে গোটা দেশ বিক্ষোভে উত্তাল। জওয়ানদের রক্ত বিফলে যেতে পারেনা। তিনি দাবি করেন, শত্রুপক্ষকে সেই ভাষাতেই জবাব দেওয়া উচিত যে ভাষা তারা বোঝে।

গত সোমবার রাতে লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় শূন্য ডিগ্রির নিচে তাপমাত্রায় চিনা সেনার আক্রমণের মুখে পড়ে ভারতীয় সেনা। পাল্টা জবাব দেন ভারতীয় জওয়ানরাও। ২০ জন ভারতীয় জওয়ান শহিদ হন।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button