State

কলা চুরির অভিযোগে নির্মম অত্যাচারের শিকার ৫ কিশোর

গাছে ফল ঝুলতে দেখলে ছেলেছোকরাদের হাত নিশপিশ করে। নদিয়ার ধানতলার বঙ্কিমনগরের তাঁতিপাড়া এলাকার ৫ কিশোরের অবস্থাও হয়েছিল সেইরকম। গত বুধবার তারা পাশের উত্তরপাড়ায় খেলতে যায়। কিশোরদের দাবি, মাঠপাড়ায় একজনের বাগানের কলাগাছে অনেক কলা ফলে থাকতে দেখে লোভ সামলাতে পারেনি তারা। তাই অনুমতি না নিয়েই গাছ থেকে টপাটপ কলা পেড়ে খেয়ে নেয় ওই কিশোররা। এটাই ছিল তাদের মস্ত বড় ‘অপরাধ’! অভিযোগ, সেই অপরাধে কিশোরদের ওপর দলবলসহ অমানবিক অত্যাচার চালায় কলাবাগানের মালিক। আক্রান্ত কিশোরদের পরিবারের দাবি, বৃহস্পতিবার সকালে অপরিচিত কয়েকজন যুবক ৫ কিশোরকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে তাদের ওপর নির্মম অত্যাচার চালায়। কিশোরদের গাছে বেঁধে লাঠি পেটা তো করা হয়ই, তার সঙ্গে যথেচ্ছ কিল, চড়, ঘুষিও মারা হয়। শুধু মারধর নয়, না বলে কলা খাওয়ার শাস্তি হিসেবে তাদের চুল, ভ্রূ কেটে নেয় যুবকরা। তাদের সাড়া শরীরে ছেড়ে দেওয়া হয় পিঁপড়ে। অমানুষিক অত্যাচারের জেরে অসুস্থ হয়ে পড়ায় কিশোরদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ৫ জনের মধ্যে ১ জনের অবস্থা সংকটজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা।

নির্যাতিত কিশোরদের অভিভাবকদের দাবি, অনুমতি ছাড়া অন্যের বাগানের কলা খাওয়ায় বাগানের মালিকের কাছে তাঁরা ক্ষমাও চেয়েছিলেন। ধানতলা থানায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন ৫ কিশোরের অভিভাবকরা। ঘটনার তদন্তে নেমে অভিযুক্ত যুবকদের খোঁজ শুরু করেছে পুলিশ।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button