National

১৫ জানুয়ারি দেশ থেকে বিদায় নেবে বর্ষা

১৫ জানুয়ারি দেশজুড়ে পালিত হবে মকরসংক্রান্তি। ওদিনই দেশের এক প্রান্ত থেকে বিদায় নেবে বর্ষা। এমনই জানাল আবহাওয়া দফতর।

পৌষসংক্রান্তি এখন দরজায় কড়া নাড়ছে। আর পৌষসংক্রান্তি মানেই মকরসংক্রান্তি পালনে মেতে উঠবে গোটা দেশ। শীত প্রায় শেষের দিকে এসে পৌঁছবে দেশের একটা বড় অংশে। এ দেশে দক্ষিণ পশ্চিম মৌসুমি বায়ুর হাত ধরে যে বর্ষা মে মাসের শেষ বা জুন মাসের শুরুতে প্রবেশ করে, তা বিদায় নেয় ৩০ সেপ্টেম্বরের আশপাশে। কখনও সে দিনটা অক্টোবরের শুরুতেও পৌঁছে যায়।

মনে হতেই পারে তাহলে ১৫ জানুয়ারি বর্ষা বিদায় মানে কি! এ দেশ থেকে যখন দক্ষিণ পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বিদায় নেয়, তারপর পরেও আর এক বর্ষা প্রবেশ করে ভারতের দক্ষিণ প্রান্তে। তামিলনাড়ু, কর্ণাটক, পুদুচেরি-র মত রাজ্যে।

সেখানে তখন প্রবেশ করে উত্তর পূর্ব মৌসুমি বায়ু। তার জেরে সেখানে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে বর্ষা। সারা ভারত যখন ক্রমে হেমন্ত পার করে শীতে কাঁপে, তখন দক্ষিণ ভারত বৃষ্টিতে ভেজে। এটাই চলে আসছে।

আগামী ২ দিনও চেন্নাইয়ের আকাশ মেঘলা থাকবে বলেই পূর্বাভাস। তবে আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে মকরসংক্রান্তির দিনই এবার বিদায় নিচ্ছে উত্তর পূর্ব মৌসুমি বায়ু।


ফলে দক্ষিণ ভারতের দ্বিতীয় বর্ষারও বিদায় হবে। সেক্ষেত্রে এটা বলা যেতেই পারে যে ভারত থেকে পুরোপুরি বিদায় নেবে বর্ষা। ফের কেরালা দিয়ে দক্ষিণ পশ্চিম মৌসুমি বায়ুর হাত ধরে বর্ষা প্রবেশ করবে সেই মে মাসের শেষ বা জুন মাসের প্রথমে।

তবে দক্ষিণ ভারত থেকে উত্তর পূর্ব মৌসুমি বায়ুর বিদায়ের দিন প্রতিবছর এক থাকেনা। বদল হতে থাকে। ২০২২ সালে এর বিদায় হয় ১২ জানুয়ারি।

আবার ২০২১ সালে দক্ষিণ ভারত থেকে উত্তর পূর্ব মৌসুমি বায়ু বিদায় হয় ২২ জানুয়ারি। এবার ১৫ জানুয়ারির পর দেশে আর কোথাও বর্ষার কোনও প্রভাব থাকবেনা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button