National

হাড় জমানো ঠান্ডার মধ্যে কিছু দেখতে পাচ্ছেনা রাজধানী

এ রাজ্যে ঠান্ডার দাপট ফের শুরু হয়েছে। কনকনে ঠান্ডা হাওয়ায় শুক্রবার বেশ কাবু মানুষজন। রাজধানীর অবস্থা শোচনীয়। সেখানে আবার ঠান্ডা জল জমানোর রাস্তায় হাঁটছে।

মাত্র কয়েকদিনের মধ্যে রাজধানী দিল্লির পারদ তরতর করে নেমে এখন জল জমিয়ে বরফ করার দরজায় পৌঁছে গেছে। হাড় কাঁপানো ঠান্ডায় ঠকঠক করে কাঁপছে দিল্লি সহ আশপাশের বিস্তীর্ণ অঞ্চল। দিল্লিতে পারদ নেমেছে ৩.৯ ডিগ্রিতে। পতনটা খুব দ্রুত দেখল দিল্লি। তরতর করে পারদ পতন হল সেখানে।

কার্যত শৈত্যপ্রবাহ চলছে দিল্লি জুড়ে। ঠান্ডার এই কামড়ের মধ্যে আরও বড় ধাক্কা দৃশ্যমানতা। সামনে থেকে সামনে কিছু দেখা যাচ্ছেনা। পুরু কুয়াশার চাদর ঢেকে দিয়েছে দিল্লিকে।

কুয়াশার দাপট এতটাই যে যান চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। ২৩টি ট্রেন দেরিতে চলছে। বিমান ওঠানামায় বিঘ্ন ঘটছে। আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে শুক্রবার সকালে দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের দৃশ্যমানতা শূন্যতে নেমে যায়। হাতের কাছেও কিছু দেখা যাচ্ছিল না।

সকালে দিল্লির ঘুম ভাঙে অস্বাভাবিক ঠান্ডা ও না দেখতে পাওয়া কুয়াশার চাদরে। অনেকেই কাজে বার হতে পারেননি। অনেকে দেরিতে কাজে গিয়েছেন। যাঁদের ওয়ার্ক ফ্রম হোম করা সম্ভব তাঁরা অনেকেই সে পথে হাঁটেন।


হাড় কাঁপানো ঠান্ডা আর কুয়াশা ছাড়াও দিল্লিবাসীর চিন্তা বাড়াচ্ছে অত্যন্ত খারাপ আবহাওয়া। এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স অনুযায়ী দিল্লির বিভিন্ন প্রান্তের দূষণ অত্যন্ত খারাপ পর্যায়ে পৌঁছে গেছে।

এই অবস্থায় আপাতত দিল্লিবাসীর দিন কাটছে। দিল্লি বলেই নয়, আশপাশের রাজ্যগুলিতেও প্রায় একই অবস্থা। আগামী ১ সপ্তাহে পরিস্থিতি যে খুব একটা বদলাবে তা মনে করছেন না আবহবিদেরা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button